আশ্রয় কেন্দ্রে নেওয়া হলো লক্ষাধিক মানুষকে

0

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল‘ এর কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের উপকূলবর্তী ঝুঁকিপূর্ণ জেলা থেকে সারাদিনে প্রায় লক্ষাধিক মানুষকে সরিয়ে আশ্রয় কেন্দ্রে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান।

শনিবার (৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ মোকাবিলায় প্রশাসনের মনিটরিং সভায় এসব তথ্য জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, আমরা প্রাকৃতিক দুর্যোগ হয়তো প্রতিরোধ করতে পারবো না। তবে দুর্যোগের পর যে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ, তা হ্রাস করার চেষ্টা করি। এছাড়াও তাৎক্ষনিক চিকিৎসা দেওয়ার জন্য ৪ হাজার ২৬৮টি মেডিকেল টিম রাখা হয়েছে। মিডিয়া ও সামাজিক যোগাযোগে সচেতন করা হচ্ছে।

সভায় জেলা প্রশাসক ইলিয়াস হোসেন বলেন, ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর কারণে উপকূলবর্তী উপজেলাসহ নগরের ঝুঁকিপূর্ণ জায়গা থেকে সারাদিনে প্রায় ৫০ হাজার মানুষকে সরিয়ে আশ্রয় কেন্দ্রে নেওয়া হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে মাইকিং অব্যাহত রয়েছে৷

তিনি আরও বলেন আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, এসিল্যান্ড ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের তত্ত্বাবধানে খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পতেঙ্গা সি-বীচসহ আশপাশের এলাকা থেকে ভাসমান দোকানগুলো তুলে দিয়ে সকল লোকজনকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও জেলায় সর্বমোট ৪৭৯টি আশ্রয় কেন্দ্রসহ ৪০০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রস্তুত রাখা হয়েছে। উপজেলাসহ জেলার সকল সরকারি অফিস সারাদিন খোলা রেখে ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতি মনিটরিং করা হয়েছে। কন্ট্রোল রুম থেকে সার্বক্ষণিক জরুরি তথ্য সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।

ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য প্রয়োজনীয় নগদ টাকা, জিআর চাল, শুকনো খাবার, ঢেউটিন ও তাঁবু প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রস্তুত আছে ২৯০টি মেডিকেল টিম, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, ফায়ার সার্ভিস, বিএনসিসি, স্কাউট, স্বেচ্ছাসেবক টিমসহ সকল সহযোগী সংস্থা। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, পুলিশ, নৌ পুলিশ, কোস্টগার্ড ও অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে এবং তারা প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক), অতিরিক্ত সচিব শংকর রঞ্জন সাহা, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন),যুগ্মসচিব মো. নুরুল আলম নিজামী, পরিচালক,স্থানীয় সরকার (অতিরিক্ত সচিব), চট্টগ্রাম বিভাগ দীপক চক্রবর্ত্তী ,অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব), যুগ্মসচিব মো. হাবিবুর রহমান, চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা ও জেলা সিভিল সার্জন ড. মো. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী।

জয়নিউজ/কাউছার/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...