সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলা বৃহস্পতিবার

0

নগরে জি ই সি কনভেনশন সেন্টারে সপ্তাহব্যাপী শুরু হচ্ছে আয়কর মেলা ২০১৯। এবার আয়কর মেলায় ৬০ হাজার রিটার্ন দাখিলের আশা করছেন আয়কর বিভাগ।

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ মেলার উদ্বোধন করবেন।

সোমবার ( ১১ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১ টায় কর বিভাগের সাম্পান সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ তথ্য জানান কর অঞ্চল-২ এর কর কমিশনার ও মেলা কমিটির আহ্বায়ক জিএম আবুল কালাম কায়কোবাদ।

তিনি জানান, ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ ৮টি বিভাগীয় শহরে ৭দিন, ৫৬টি জেলা শহরে ৪ দিন, ৪৮টি উপজেলায় দুইদিন ও ৮ টি উপজেলা শহরে একদিন ব্যাপী এ মেলা উদযাপন করা হবে। ২০০৮ সাল থেকে আয়কর দিবস উদযাপন এবং ২০১০ সাল হতে আয়কর মেলা আয়োজনের ফলে জাতীয় বাজেটে প্রত্যক্ষ করের অবদান ক্রমেই বেড়ে চলছে।

তিনি আরও জানান, বুধবার ( ১৩ নভেম্বর) আয়কর বিভাগ কর্তৃক মনোনীত সর্বোচ্চ ও দীর্ঘ মেয়াদি করদাতাদের সম্মাননা তুলে দিবেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এম পি।

এবারের আয়কর মেলায় করদাতারা যেসব সেবা পাবে উল্লেখ করেকায়কোবাদ বলেন, করদাতারা মেলায় ২০১৯-২০২০ কর বর্ষের আরকর রিটার্ন জমা দিতে পারবেন। কর তথ্য ও সেবা সহজে পেতে চট্টগ্রামের প্রতিটি কর অঞ্চল বা সার্কেলের জন্য ৪৬টি বুথ থাকবে। মেলায় ই-টিআইএন রেজিস্ট্রেশন বুথে থাকবে যেখানে নতুন করদাতারা ই-টিআইএন রেজিস্ট্রেশন করতে পরাবে। অনলাইনের মাধ্যমে ও আয়কর প্রদানের ব্যবস্থা রয়েছে। মেলায় ই-পেমেন্ট এর মাধ্যমে আয়কর পরিশোধের সুবিধা পাবে।

আয়কর সূত্রে জানা যায়, জাতের রাজস্ব বোর্ড ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে আয়কর ও ভ্রমণ কর খাতে ৭২ হাজার ৮৯৯ কোটি ৯০ লাখ টাকা ও আমদানি শুল্ক, মূল্য সংযোজন কর ( আমদানি ও স্থানীয় পর্যায়ে), সম্পূরক শুল্ক ( আমদানি ও স্থানীয় পর্যায়) ও রপ্তানি শুল্ক ও টার্নওভার ট্যাক্সসহ সর্বমোট ২ লাখ ২৩ হাজার ৮৯২ কোটি ৪২ লাখ টাকা আহরণ করেছে। চলতি ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের মোট রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা ৩ লাখ ২৫ হাজার ৬০০ কোটি টাকা এবং আয়কর আহরণের লক্ষ্যমাত্রা ১ লাখ ১৫ হাজার ৫৮৮ কোটি ১৬ লাখ টাকা। এছাড়া চট্টগ্রামে ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে আয়কর আহরণ হয়েছে ১১ হাজার ১৭৭ কোটি টাকা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কর অঞ্চল -১ এর কমিশনার মো. ইকবাল হোসেন, কর অঞ্চল -৩ এর কর কমিশনার মো. মাহবুব রহমান ও কর অঞ্চল – ৪ এর কমিশনার ব্যারিস্টার মুনতাকিন বিল্লাহ ফারুকী।

জয়নিউজ/বাচ্চু/কাউছার/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...