জামিনে এসে ফের ডাকাতি, অবশেষে আইজ্জা নিহত

0

হত্যা মামলায় ১২ বছর সাজা খাটার পর জামিনে মুক্তি পেয়ে ফের ডাকাতিতে অংশ নিলে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে আজিজ ডাকাত ওরফে আইজ্জা ডাকাত নিহত হয়েছে।

রোববার (১৭ নভেম্বর) রাত আড়াইটার দিকে খুলশীর নাসিরাবাদ প্রপার্টিজ লিমিটেডেরে ৮ নম্বর রোডের পশ্চিম মাথায় টিলার উপর থেকে গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গরীবুল্লাহ হাউজিং সোসাইটি এলাকায় একটি বাসায় ঢুকে বাড়ির লোকজনকে জিম্মি করে স্বর্ণালঙ্কার ও দুটি মোবাইল ফোন ছিনতাই করে নিয়ে যায় একদল ডাকাত। এ ঘটনায় বাড়ির মালিক আরিফুল হক খুলশী থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ তদন্ত শুরু করে।

খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা প্রণব চৌধুরী জয়নিউজকে বলেন, ‘সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত সিএনজিটেক্সি ও চালককে আটক করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে কোতোয়ালির পুরাতন গির্জা এলাকার নবরত্ন জুয়েলার্সের মালিক দুর্জয় বণিককে ছিনতাই হওয়া গয়নাসহ আটক করা হয়।

প্রণব চৌধুরী আরও বলেন, টেক্সি চালক ও দুর্জয়কে আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ করার পর রফিক নামের আরেকজনের সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়। পরে রফিককেও আটক করা হয়। আটকের পর রফিক আজিজ ডাকাতের নাম প্রকাশ করে।

তিনি বলেন, ছিনতাই কাজের মূল হোতা আজিজ ডাকাতকে ধরতে ডেবার পাড় এলাকায় অভিযান চালানো হয়। পুলিশের অবস্থান টের পেয়ে আইজ্জা ও তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে একপর্যায়ে আইজ্জা গুলিবিদ্ধ হয়। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

তিনি আরও বলেন, ঘটনাস্থল থেকে একটি দেশে তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র ও দুই রাউন্ড অব্যবহৃত কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় একটি অস্ত্র মামলা ও একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আজিজ ডাকাতের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলাসহ নগরের বিভিন্ন থানায় তিনটি মামলা রয়েছে। সে একটি মামলায় ১২ বছর সাজা খাটার পর তিন মাস আগে জামিনে মুক্তি পায় বলে জানান তিনি।

জয়নিউজ/রিফাত/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...