সন্ধ্যা হলেই চালু হতো ড্রেজার…

0

ইন্দিরা ঘাটে প্রতিদিন সন্ধ্যা হলেই একটি প্রভাবশালীমহল চালু করতো ড্রেজার। আজও তাই হতো, চলতো গভীর রাত পর্যন্ত। ফলে নদী ভাঙন ছাড়াও ড্রেজারের প্রচণ্ড শব্দে স্থানীয়দের অবস্থা ছিল শোচনীয়। তবে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান প্রভাবশালীমহলের সেই পরিকল্পনা ভেস্তে গেছে।

মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) হাটহাজারী উপজেলার ছিপাতলী ইউনিয়নের হালদা নদীর ইন্দিরা ঘাটে অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে ব্যবহৃত ড্রেজার জব্দ করে পুড়িয়ে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বিকাল ৩টা থেকে ৬টা পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের পরিচালিত এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমিন।

এ ব্যাপারে ইউএনও জয়নিউজকে বলেন, উপজেলার ছিপাতলী ইউনিয়নের হালদা নদীর ইন্দিরা ঘাটে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। ইন্দিরা ঘাটে প্রতিদিন সন্ধ্যা হলেই একটি প্রভাবশালীমহল চালু করতো ড্রেজার, চলতো গভীর রাত পর্যন্ত। নদী ভাঙন ছাড়াও ড্রেজারের প্রচণ্ড শব্দে স্থানীয়দের অবস্থা ছিল শোচনীয়। এসময়ে একটা ড্রেজার জব্দ করে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।

তিনি আরও বলেন, ঘটনাস্থল থেকে প্রায় এক লাখেরও বেশি ঘনফুট বালু জব্দ করে স্থানীয় ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তাকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়। ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান কঠোরভাবে চলবে।

উল্লেখ্য, গত ১৪ মাসে হালদায় ৭১টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে উপজেলা প্রশাসন। এসব অভিযানে ১ লাখ ৭১ হাজার মিটার ভাসা জাল ও ঘেরা জাল জব্দ করা হয়।

ছয়টি ড্রেজার এবং ১২টি বালু উত্তোলনকারী নৌকা ধ্বংস করা হয়। একাধিক ব্যক্তিকে কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

জয়নিউজ/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...