নগরের প্রধান সড়কগুলোর কাজ শেষ হলে চেহারা পাল্টে যাবে: চসিক মেয়র

0

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, নগরের চারদিকে প্রধান সড়কগুলো কাজ শেষ হলে নগরের চেহারা পরিবর্তন হবে।

মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরে আন্দরকিল্লার কেবি আবদুস সাত্তার মিলনায়তনে চসিকের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

নগরের চারদিকে প্রধান সড়কগুলো সম্প্রসারণ কাজ চলছে উল্লেখ করে চসিক মেয়র বলেন জাইকার অর্থায়নে আগ্রাবাদ এক্সেস ও পোর্টকানেকটিং সড়ক হচ্ছে। খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করা হবে। জাইকা সরাসরি কাজ তদারকি করছে।

দেওয়ানহাট থেকে অলংকার সড়ক সম্প্রসারণ করেছি। টাইগারপাস আমবাগান সড়কের কাজ চলছে। এছাড়াও হাটহাজারি সড়ক, বহদ্দারহাট আরকান সড়ক এবং বায়েজিদ বোস্তামি সড়কের কাজ চলমান আছে। খুব অল্প সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করার জন্য আরকান সড়কে ১২টি লটে ভাগ করে টেন্ডার দিয়েছি। ঠিকাদার নিয়োগ দিয়েছি। নগরের চারদিকে এই সড়কগুলোর শেষ হলে চেহারা পরিবর্তন হবে।

মেয়র আরও বলেন, বর্ষার সময় বিমানবন্দর সড়কে আগে জলবদ্ধতা হতো। অনেক সময় বিমান বন্দরে যারা যান তারা যেতেও পারেন না। তাই জনগণের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে বিমানবন্দর সড়ক সম্প্রসারণ করা হচ্ছে। সড়কের দুই পাশে ড্রেনেজ ব্যবস্থা করা হচ্ছে। জলাবদ্ধতা থেকে নিরসনের জন্য বিমানবন্দর সড়ক উচু করা হয়েছে। এখন মেগাড্রামের কাজ চলছে।
শুষ্ক মৌসুম কাজ করার উপযুক্ত সময়। এ সময়টা কাজে লাগাতে সচেষ্ট আমরা। দ্রুত সময়ে কাজ শেষ করার জন্য রাতেও কাজ করছে চসিকের প্রকৌশল বিভাগ।

পোর্টকানেকটিং সড়ক নিয়ে অনেক বিভ্রান্তি আছে। পোর্টকানেকটিং-নিমতলা সড়ক থেকে অলংকার পর্যন্ত ৬.২ কি.মি।

জাইকার অর্থায়নে দুই লটে কাজ চলছে উল্লেক করে তিনি বলেন জাইকার নিয়ম অনুযায়ী আমাদের কাজ করতে হয়। জাইকা নিজের স্ট্রাইলে কাজ করে। জাইকা কনসেপ্ট ছাড়া কোনো কাজ করা যায় না। তাদের অনুউপস্থিতিতে কাজ করা যায় না। তারা সরাসরি কাজগুলো নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করে।

মেয়র আরও বলেন, ৫৬০ কিমি পিচঢালা সড়ক ৮১৬ কিমিতে, ২২২ কিমি কনক্রিট সড়ক ৩২৮ কিমিতে, ৬৮৩ দশমিক ৫৫ কিমি পাকা নালা ৯৪৬ দশমিক ৫ কিমিতে, ১৪৬ দশমিক ০৭ কিমি ফুটপাত ২৮৭ কিমিতে, ৮০ দশমিক ২০ কিমি প্রতিরোধ দেয়াল ৯৯ কিমিতে, ১৮৮টি ব্রিজ ২১৯টিতে, গভীর নলকূপ ৩৭২টি থেকে ৪২৩টিতে, কালভার্ট ৯৩২টি থেকে ১ হাজার ৪৮টিতে উন্নীত করা হয়েছে। ৭৮ দশমিক ৫৩ কিমি ব্রিকসলিং ৫২ দশমিক ৯৩ কিমি কমিয়ে ২৫ দশমিক ৬ কিমিতে নামিয়ে আনা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চসিকের কাউন্সিলর আবিদা আজাদ, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামশুদ্দোহা, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্নেল সোহেল আহমেদ, প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ একেএম রেজাউল করিম, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া ও মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম।

জয়নিউজ/কাউছার/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...