যুবলীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষে আহত ১০, আটক ৪

0

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে যুবলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছে অন্তত ১০ জন। গুরুতর আহত ৫ জনকে রায়পুর ও সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) রাত ৯ টায় দিকে উপজেলার হায়দরগঞ্জ বাজারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে অভিযান চালিয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলে ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক রাজুসহ উভয় পক্ষের ৪ নেতাকর্মীকে আটক করে পুলিশ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, যুবলীগ নেতা মঞ্জুর হোসেন সুমন গ্রুপ ও যুগ্ম আহ্বায়ক কৌশিক সোহেল গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলছিল। এর মধ্যে সম্প্রতি উপজেলা পর্যায়ে যুবলীগের কমিটি ঘোষণা নিয়ে ফেসবুকে প্রচার করা হলে তাদের ধন্ধ আরো প্রকাশ্যে রুপ নেয়।  গত দুইদিন ধরে একে অপরের  বিরুদ্ধে বিচারের দাবি জানিয়ে বাজারে মানববন্ধন করে আসছে। সে ঘটনা থেকেই মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সুমন গ্রুপ ও কৌশিক সোহেল গ্রুপের কর্মীদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এ সময় পুরো বাজার এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। রাত ৯ টার দিয়ে দুই গ্রুপের নেতাকর্মীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে আনোয়ার বয়াতি, লেদু মিয়া, শামিন হোসেন, মো. ইউসুফ, মিজানুর রহমান, সিরাজ ও রাজুসহ ১০ আহত হয়। আহতদের মধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায় আনোয়ার ও সিরাজকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ও অন্যদের রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেক্য্র ভর্তি করা হয়েছে।

হায়দরগঞ্জ ফাঁড়ি থানার ইনচার্জ মো. বেলায়েত হোসেন জয়নিউজকে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। তবে এখনও কেউ কোনো লিখিত অভিযোগ কেউ দেয়নি।

জয়নিউজ/মনির/পিডি

 

 

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...