‘দেশে দুর্নীতি কমেনি, হোঁচট খেয়েছে মাত্র’

0

চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান বলেছেন, দুর্নীতিবাজরা জাতির শত্রু। এরা দেশের স্বাধীনতা, সাবভৌমত্ব, উন্নয়নের প্রধান অন্তরায়। সরকার দুর্নীতি দমনে কঠোর। তারপরও এখনো প্রত্যাশিতভাবে দেশে দুর্নীতি কমেনি, হোঁচট খেয়েছে মাত্র।

সোমবার (৯ ডিসেম্বর) আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস ২০১৯ উপলক্ষে শিক্ষার্থী-সততা সংঘের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। নগরের শিল্পকলা একাডেমিতে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) চট্টগ্রাম এই সমাবেশের আয়োজন করে।

বিভাগীয় কমিশনার বলেন, দুর্নীতি একটি রোগ। এই রোগ সারাতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। প্রধানমন্ত্রী এ ব্যাপারে কঠোর রয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের নারী জাগরণের অগ্রদুত- এই দিনে জন্ম ও মৃত্যুবরণ করেন। প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদ, সায়মা ওয়াজেদ পুতুলেরও আজ জন্মদিন। সতিদাহ প্রথা বিলুপ্ত হয়েছিল এই দিনে। এমন মহান দিনে দেশব্যাপী পালিত হচ্ছে আন্তজাতিক দুর্নীতি রিরোধী দিবস।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আগামীর বাংলাদেশ তোমরাই বির্নিমাণ করবে। তোমরা তোমাদের অবস্থান থেকে দুর্নীতি দমনে এগিয়ে আসবে।

এসময় তিনি গত এক বছরে দুদকের টেলিফোনে দেশের একত্রিশ লাখ মানুষ অভিযোগ দিয়েছে বলেও জানান।

বিশেষ অতিথি চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি আবুল ফয়েজ বলেন, দুর্নীতিবাজদের আমরা সম্মান করি। জানতে চাইনা দুর্নীতিবাজরা কি ভাবে, কত হাজার কোটি টাকা দুর্নীতি করে কামিয়েছে। সম্মান করলে তারা আরো দুর্নীতি করতে উৎসাহিত হবে। এ অবস্থান থেকে আমাদের সরে আসতে হবে।

চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার আমেনা বেগম বলেন, মানুষের মাঝে মানবিকতা সৃষ্টি করতে হবে। আমাদের পরবর্তী প্রজন্মকে সততার দীক্ষা দিতে হবে।

দেশে দুর্নীতি কমেছে দাবি করে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন বলেন, সরকারের কঠোর মনোভাবের কারণে দেশে এখন ৫০ শতাংশ দুর্নীতি কমে এসছে। জেলা প্রশাসকের এ মন্তব্যে সমাবেশে দ্বিমত পোষণ করে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, দেশে দুর্নীতি কমেনি, হোঁচট খেয়েছে মাত্র।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা বলেন, মানুষের অপরাধ চিরন্তন। এটি মানব সৃষ্টির প্রথম থেকে চলে আসছে। এখন এটাকে দমন ও নিয়ন্ত্রণে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

সভাপতির বক্তব্যে দুদক চট্টগ্রামের পরিচালক মাহমুদ হাসান বলেন, বাংলাদেশ সৃষ্টির ৫০ বছরেও দেশের স্বাধীনতার প্রকৃত স্বাদ পাওয়া সম্ভব হয়নি দুর্নীতির কারণে। আমরা দুর্নীতিবাজদের ধরতে কাজ করে যাচ্ছি। শুধু চুনোপুঁটি নয়, ইতোমধ্যে আমরা রুই কাতলাও ধরেছি। তাদের কবল থেকে ৪৩৯ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করেছি।

চট্টগ্রাম দুর্নীতি দমন কমিটির সভাপতি মনোয়ারা হাকিম আলী বলেন, মায়েরা চাইলে এ দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করতে পারবেন। তাদের স্বামী-সন্তানদের বুঝিয়ে দুর্নীতি দমনে ব্যাপক ভূমিকা রাখতে পারে।

এর আগে সকাল ৯টায় ওয়াসার মোড় ও শিল্পকলা একাডেমির সামনে দুর্নীতি বিরোধী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

জয়নিউজ/গিয়াস/পিডি
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...