চবিতে আটকরা অতিথি নাকি অপহৃত

0

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) আবাসিক হলে অবস্থানকালে তিন বহিরাগতকে আটক করেছে প্রক্টরিয়াল বডি। এদের মধ্যে দুইজন নিজেদের অপহরণের শিকার বলে দাবি করেছে। আরকজনের দাবি, তিনি অতিথি। তবে তাদের সবাইকে হাটহাজারী থানায় সোপর্দ করা হয়।

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) রাত সোয়া ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সোহরাওয়ার্দী হলের ১০৪ নম্বর রুম থেকে তাদের আটক করা হয়।

এদের মধ্যে মো. আয়াজ ও মো. নাসিম নামে দুইজন নিজেদের অপহৃত বলে দাবি করেছে । তাদের অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয়ের সংস্কৃত বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র আশরাফ খান শুভর অতিথি আসাদ তাদের অপহরণ করে। শুভ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপুর অনুসারী।

প্রক্টরিয়াল বডির সূত্রে জানা যায়, আয়াজ ও নাছিমকে ফরেস্ট্রি থেকে অপহরণ করে সোহরাওয়ার্দী হলের ১০৪ নম্বর রুমে আটকে রেখে শারিরীক নির্যাতন করে আসাদ। পরে প্রক্টরিয়াল বডি ও পুলিশ আসলে আসাদসহ সাত-আটজন পালিয়ে যায়। ওই কক্ষ থেকে ইয়াছিন আরাফাত, আয়াজ এবং নাছিমকে আটক করা হয়। এর মধ্যে ইয়াছিন নাট্যকলা বিভাগের সম্রাট শিকদারের অতিথি ছিলেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক এসএম মনিরুল হাসান জয়নিউজকে বলেন, খবর পেয়ে আমরা তাদেরকে আটক করি। বাকিরা পালিয়ে যাওয়ায় আটক করতে পারিনি। বহিরাগত হওয়ায় তাদেরকে থানায় সোপর্দ করেছি।

তিনি বলেন, ওই কক্ষে বরাদ্দপ্রাপ্ত ছাত্ররা থাকে না। অবৈধভাবে বসবাসরত ছাত্রদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

হাটহাজারী থানার পরিদর্শক (অপারেশন) তৌহিদুল করিম জয়নিউজকে বলেন, তিন বহিরাগতকে আটক করা হয়েছে। কী কারণে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ে হলে অবস্থান করছিল তা আমরা নিশ্চিত হতে পারিনি। তাদের ব্যাপারে তথ্য নেওয়া হচ্ছে।

জয়নিউজ/নবাব/পিডি

 

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...