চুরি করতে গিয়ে সিলিং ফ্যানসহ ধরা পড়লো যুবক

0

পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকের বাসায়সিলিং ফ্যানসহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় হাতেনাতে মোহাম্মদ হাসান (২৭) নামে এক যুবককে ধরেছে স্থানীয় জনতা।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার বিকেল পৌনে ৫ টার দিকে। হাসান চন্দনাইশের দোহাজারী এলাকার আবুল হাশেমের ছেলে। পরে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে তাকে আটক করে পুলিশ।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইপিআই কর্মকর্তা রবিউল হোসেন জয়নিউজকে বলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকদের আবাসিক এলাকার করতোয়া ভবনের দ্বিতীয় তলার পেছন দিকে ঢুকে দরজা ভেঙে দুটি সিলিং ফ্যান খুলে নেয়। পরে ওই বাসার গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র নিয়ে যাওয়ার সময় হাতেনাতে ধরা পরে। বাসাটি হাসপাতালের চিকিৎসক হুমায়ুন কবিরের জন্য বরাদ্দ হলেও সেখানে তিনি থাকেন না।

জানা যায় , এর আগেও প্রায়সময় আবাসিক কটেজগুলোতে চুরি ঘটনা ঘটেছে। বিভিন্ন সময় পানির মোটর, মেডিকেলের এলইডি টেলিভিশন, স্টাফ কোয়ার্টারের বাসা চুরির ঘটনা ঘটেছে।

পটিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বোরহান উদ্দিন জয়নিউজকে বলেন, ‘হাসপাতালের আবাসিক ভবন থেকে সিলিং ফ্যানসহ কাগজপত্র চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা তাকে আটক করে। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে থানায় নিয়ে আসে। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জয়নিউজ/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...