রাজপথে মিমি-নুসরাত

0

ভারতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বাতিলের দাবিতে ফের রাজপথে নেমেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) এদিন তার নেতৃত্বে বিক্ষোভে অংশ নেন  কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী যাদবপুরের সংসদ সদস্য মিমি চক্রবর্তী ও বসিরহাটের সংসদ সদস্য নুসরাত জাহানও।

দুপুর ১টা নাগাদ যাদবপুরের ৮বি বাসস্ট্যান্ড থেকে মিছিল শুরু হয়ে শেষ হয় ভবানীপুরের যদুবাবুর বাজারে।

তাদের পাশে নিয়ে মমতা বলেন, ‘বিজেপি ভাবছে দেশ দখল করে নিয়েছি। সংখ্যার জোরে আইন পাস করানো যায়। মানুষের সমর্থন না পেলে কার্যকরী হয় না। সংবিধান মেনে নাগরিকত্ব আইন হয়নি। কবে বিল পাস হবে, আগে জানানো হয়নি। না জানায় অনেক সংসদ সদস্য পৌঁছতে পারেননি।

গত ১০ ডিসেম্বর রাতে লোকসভায় সংশোধিত নাগরিকত্ব বিল পাশের ভোটাভুটির সময়ে তৃণমূল সাংসদদের মধ্যে অনুপস্থিত ছিলেন মিমি এবং দেব। দুপুরে বিল পেশের সময়ে যখন ভোটাভুটি হয়, তখন এঁদের পাশাপাশি দেখা যায়নি নুসরতকেও। যদিও অভিনেত্রী দাবি করেছিলেন, রাতে বিলের বিরুদ্ধে ভোট দেন তিনি। এই ঘটনার পরে মিমি ও নুসরতের সংসদীয় ভূমিকা নিয়ে প্রশ্নও ওঠে। দলীয় কাজকর্মে মিমির অনুপস্থিতি নিয়ে বারবার প্রশ্ন উঠেছে। তবে মঙ্গলবার মিছিল শুরুর নির্ধারিত সময়েই পৌঁছে গিয়েছিলেন মিমি। তাঁর নির্বাচনি কেন্দ্র দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী হেঁটে যাবেন, তাই মিমির যোগদান প্রত্যাশিত ছিল। মমতার পাশে পাশেই তাঁকে দেখা গিয়েছে এ দিন। মিছিল শেষে দিদির হাতে জলের বোতলও তুলে দেন তিনি। এ দিনের মিছিলে হেঁটেছেন সোহম চক্রবর্তী, গৌতম ঘোষও। তবে টুইটে গণতন্ত্রের পথে থাকার আহ্বান জানালেও মিছিলে দেখা যায়নি দেবকে।

জয়নিউজ/পিডি

 

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...