খালেদার স্বাস্থ্য নিয়ে তথ্যসন্ত্রাস করছে বিএনপি

0

কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া স্বাস্থ্য নিয়ে বিএনপি তথ্যসন্ত্রাস করছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি।

বুধবার (২৫ ডিসেম্বর) দুপুরে শাহ আমানত বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ মন্তব্য করেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পর এবারই তিনি প্রথম চট্টগ্রাম আসলেন। ইউএস বাংলার একটি ফ্লাইটে তিনি দুপুর ২টায় চট্টগ্রাম পৌঁছেন।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে বিএনপি তথ্যসন্ত্রাস করছে।কারণ বেগম খালেদা জিয়ার যে শারীরিক সমস্যাগুলো আছে সেগুলো বহু পুরনো। তার হাঁটুর ব্যথা, কোমরের ব্যথা নতুন নয়।এগুলো নিয়েই তিনি দুবার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি দুবার বিরোধীদলীয় নেত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি বিএনপির মতো একটি দলের চেয়ারপারসনের দায়িত্ব পালন করেছেন।

তিনি আরও বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার পুরনো শারীরিক সমস্যাকে বড় করে দেখিয়ে বিএনপি প্রতিনিয়ত তথ্যসন্ত্রাস করছে। খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে রিজভী আহমেদের মঙ্গলবারের বক্তব্য তথ্যসন্ত্রাস ছাড়া আর কিছুই নয়।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছেন জানিয়ে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব দিয়েছেন, আমি এটাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করেছি। সেই কাজে আমি যাতে সফল হই সেজন্য প্রথম থেকেই চেষ্টা করবো। আস্থা ও বিশ্বাসের মর্যাদা রক্ষা করতে আপ্রাণ চেষ্টা করবো।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বদলে গেছে। জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে একটি উন্নত সমৃদ্ধ রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তোলার স্বপ্নের কথা বলেছেন। আমরা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বাংলাদেশকে সেই স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছাতে চাই। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছবে।

এর আগে নতুন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদককে বরণ করতে বিমানবন্দরে জড়ো হন চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। সবমিলিয়ে সকাল থেকেই উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করে  বিমানবন্দর এলাকায়।

যুগ্ম সম্পাদককে ফুলেল শুভেচ্ছা জানাতে বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন  নগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এমএ সালাম ও সাধারণ সম্পাদক শেখ আতাউর রহমান, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোছলেম উদ্দীন ও সাধারণ সম্পাদক মুফিজুর রহমান, সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের পক্ষ থেকে প্যানেল মেয়র ড. নেছার আহমেদ মঞ্জু, কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউকসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী।

জয়নিউজ/কাউছার/পিডি

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...