সুবর্ণ জয়ন্তীর মঞ্চে বাবার সামনেই ছেলের মৃত্যু

0

বাঁশখালীর কাথারিয়া-বাগমারা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান মঞ্চে মো. রেজাউল করিম তালুকদার লিটন (৪০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। একইসময় ওই মঞ্চে প্রাক্তন ছাত্র হিসেবে তাঁর পিতা নুরুল ইসলাম তালুকদারও ছিলেন।

শনিবার (২৮ ডিসেম্বর) দুপুর সোয়া ২টায় মারা যায় এ যুবক। লিটন বাঁশখালীর কাথারিয়া গ্রামের মো. নুরুল ইসলাম তালুকদারের ছেলে।

সূত্রে জানা গেছে, লিটন ছিলেন ১৯৯৪ ব্যাচের ছাত্র। তিনি রাজধানী ঢাকায় এক বায়িং হাউজে চাকরি করেন। নিজের লেখাপড়া করা কাথারিয়া-বাগমারা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে গ্রামের বাড়ি বাঁশখালীর কাথারিয়া গ্রামে আসেন। শনিবার দুপুর সোয়া ২টার দিকে তিনি বক্তৃতা দিতে মঞ্চে ওঠেন। দীর্ঘ ১৫ মিনিট বক্তৃতাও দেন। বক্তৃতা শেষ করে পরে মঞ্চে বসেন। ওই সময় সভাপতির বক্তৃতা দিতে ওঠেন কাথারিয়া-বাগমারা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি ও কাথারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান।

তিনি বক্তৃতা দেওয়ার এক পর্যায়ে পিছনের চেয়ারে বসা অবস্থায় হাত পা খিঁচুনি দিয়ে মঞ্চের পাঠাতনে লুঠে পড়েন লিটন। ওই সময় উপস্থিত অতিথিরা তাকে উদ্ধার করে বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এসময় কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

কাথারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান বলেন, লিটনের মৃত্যুটা খুবই মর্মান্তিক। সবার আনন্দের মাঝে তাঁর মৃত্যুতে আমরা খুবই মর্মাহত হয়েছি।

জয়নিউজ/উজ্জ্বল/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...