নতুন বই ঘরেই আছে, শুধু নেই ইব্রাহিম

0

বছরের প্রথম দিন স্কুল থেকে নতুন বই নিয়ে সহপাঠীদের সঙ্গে খেলতে খেলতে বাড়ি ফিরলেন ছোট্ট শিশু ইব্রাহিম খলিল (৯)। কিন্তু সে নতুন বই আর পড়া হলো না তার। পরদিন রাতেই এক আত্মীয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে। সবাই যখন বিয়ের বাড়িতে হাসি-আড্ডায় ব্যস্ত,  তখনই মাটিয়ে লুটিয়ে পড়ে আকস্মিক মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে সে।

বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) রাত সোয়া ৯টার দিকে তাইন্দং ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের করম আলী মেম্বারপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

ইব্রাহিম খলিল খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গার তাইন্দংয়ের করম আলী মেম্বারপাড়ার মো. রজ্জব আলীর ছেলে। সে তাইন্দং আচালং ডিপি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

তাইন্দং ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার মো. মনির হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার রাতে এক আত্মীয়ের গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে গিয়েছিল ইব্রাহিম। যখন সেখানে সব শিশুরা আনন্দ করছিল তখন কাউকে কিছু না বলে সেখান থেকে বাড়ির বাইরে যায় সে। একপর্যায়ে সেখানে মাথা ঘুরে মাটিতে পড়ে যায়। এসময় দ্রুত তাইন্দং বাজারে স্থানীয় গ্রাম্য চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে শিশু ইব্রাহিমের আকস্মিক মৃত্যুতে পুরো এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। প্রিয় সন্তানকে হারিয়ে শোকে নির্বাক হয়ে পড়েছেন তার মা-বাবাসহ স্থানীয়রা।

তাইন্দং আচালং ডিপি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. ইউনুছ মিয়া জয়নিউজকে বলেন, অত্যন্ত চটপটে স্বভাবের ইব্রাহিম খলিল ছাত্র হিসেবে খুব মেধাবী ছিল। তার এ অকাল মৃত্যু সইবার নয়।

জয়নিউজ/জাফর/পিডি
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...