চুনোপুঁটির খবরে ধরা পড়ল রাঘববোয়াল

0

নগরের মইজ্জারটেক এলাকা থেকে ইয়াবাসহ এক রোহিঙ্গা নাগরিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ইয়াবার মূল ডিলারকেও গ্রেপ্তার করা হয়া। মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারী) রাতে বায়েজিদ ও মইজ্জারটেক এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তাররা হলো- কক্সবাজার রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পের মৃত হোসেন আহমদের ছেলে সৈয়দুর রহমান (৩১) ও বায়েজিদের অক্সিজেন শীতলঝর্না আবাসিকের মৃত মো. শফির ছেলে দীন আলম (৪০)।

ইয়াবার ডিলার দীন আলম(

পুলিশসূত্রে জানা যায়, রোহিঙ্গা নাগরিক সৈয়দুর রহমান মইজ্জারটেক কলেজ রোড যাওয়ার সময় তার গতিবিধি সন্দেহ হয়। পরে পুলিশ তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তার কাছে ইয়াবা থাকার কথা স্বীকার করে এবং তার প্যান্টের পকেট থেকে ১৭০০ পিস ইয়াবা বের করে দেয়। ইয়াবাগুলো কোথায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তা জানতে চাইলে সে তার মূল ডিলার দীন আলমের কথা। পরে পুলিশ তাকে নিয়ে অভিযান চালিয়ে দীন আলমকেও আটক করে। এসময় দীন আলমের বাড়ি তল্লাশি করে অভিনব কৌশলে লুকানো অবস্থায় ১১ হাজার ৭০০ পিস ইয়াবা এবং ইয়াবা বিক্রির নগদ ১০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারকৃত ইয়াবা ও নগদ টাকা

কর্নফুলী জোনের সহকারী কমিশনার ইয়াসির আরাফাত জয়নিউজকে জানান, ইয়াবা উদ্ধারের অভিযানটি অনেক কৌশলী হতে হয়েছিল পুলিশকে। মূলহোতা দীন আলম খুবই সর্তকতা অবলম্বন করে ইয়াবা গুলো তার ঘরে মজুদ করে। যা সাধারণ মানুষের পক্ষে ঘুনাক্ষরেও আঁচ করা সম্ভব না।

কর্নফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) জুবায়ের সৈয়দ জয়নিউজকে জানান, আটক রোহিঙ্গা নাগরিক সৈয়দুর ও দীন আলমের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা হয়েছে।

জয়নিউজ/কামরুল/পিডি

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...