পটিয়ায় গ্রামবাসীদের মুখোমুখি সংঘর্ষ, গুলিবিনিময়

0

পটিয়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ ও গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার কমলমুন্সির হাট এলাকায় ছাত্রলীগ নেতাকে হামলার জের ধরে সোমবার দুই গ্রামের মানুষের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কচুয়াই ইউনিয়নের পারিগ্রাম মল্লপাড়া গ্রামের লোকজনের সঙ্গে খরনা ইউনিয়নের উত্তর খরনা ওয়াহিদুর পাড়া গ্রামের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সকাল ১০টা থেকে উভয় পক্ষের লোকজন আগ্নেয়াস্ত্র, হকিস্টিক, রামদা, লাঠিসোটা নিয়ে চক্রশালা রেল স্টেশন এলাকায় অবস্থান নেয়। এ সময় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, বেশ কয়েকটি দোকান ভাঙচুর এবং উভয় পক্ষের মধ্যে ৬ রাউন্ড গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। তবে এতে কেউ গুলিবিদ্ধ বা হতাহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। পুলিশ সেখান থেকে তিনটি কিরিচ, ৮টি হকিস্টিকসহ বিপুল পরিমাণ লাঠিসোটা উদ্ধার করে। সংঘর্ষ চলাকালে ওই এলাকায় সকাল থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত প্রায় শতাধিক দোকানপাট বন্ধ ছিল।

কচুয়াই ইউপি চেয়ারম্যান এস এম ইনজামুল হক জসিম জানান, ছাত্রলীগ নেতা মাঈমুনকে হামলার পর বিষয়টি জানতে পেরে স্থানীয়ভাবে উক্ত ঘটনা মীমাংসা করার উদ্যোগ নিলে এক পক্ষ প্রকাশ্যে গুলি বর্ষণ করায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

পটিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ নেয়ামত উল্লাহ জানান, গুলিবর্ষণের খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

জয়নিউজ/জেডএইচ

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...