দিনজুড়ে বাঘের গর্জন

0

মুশফিকুর রহিমের ডাবল সেঞ্চুরির অপেক্ষাতেই ছিল বাংলাদেশ। মুশফিকের ডাবলের পরই ৬ উইকেটে ৫৬০ রানে ইনিংস ঘোষণা করে টাইগাররা। আর ২৯৫ রানের লিড মাথায় নিয়ে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে খেই হারিয়েছে জিম্বাবুয়ে

ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই প্রিন্স মাসভাউরেকে (০) তুলে নেন নাঈম হাসান। পরের বলেই তিনে নামা ডোনাল্ড ট্রিপানো (০) লিটন দাসের গ্লাভসবন্দি হন। সফরকারীরা দিন শেষ ৫ ওভার ব্যাট করে ২ উইকেটে ৯ রান তুলেছে। সফরকারীরা এখনও ২৮৬ রানে পিছিয়ে আছে। আর জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ৮ উইকেট।

চলতি টেস্টের তৃতীয় দিনজুড়ে বাঘের গর্জন শুনছে ক্রিকেটবিশ্ব। এই টেস্টের চালকের আসনেও এখন টাইগাররা।

এর আগে টেস্ট ক্যারিয়ারে তৃতীয়বারের মতো ডাবল সেঞ্চুরির দেখা পান মুশফিকুর রহিম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের একমাত্র টেস্টে ব্যাটিংয়ে নেমে তৃতীয় দিনে ৭ম টেস্ট সেঞ্চুরি উদযাপন করেন মুশফিক। দাপুটে ব্যাটিংয়ে শতককে ডাবল সেঞ্চুরিতে পরিণত করেন তিনি।

এইন্সলে এনদুলুভুর করা ১৫৩ ওভারের দ্বিতীয় বলে চার মেরে ডাবল সেঞ্চুরি করেন ‘মিস্টার ডিপেন্ডবল।’ তার অপরাজিত ইনিংসটি ৩১৮ বলে ২৮ চারে ২০৩ রানের সাজানো ছিল।

মুশফিকের ডাবল সেঞ্চুরির পর ১৫৪ ওভারে ৬ উইকেটে ৫৬০ রান নিয়ে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। টাইগাররা লিড নিয়েছে ২৯৫ রানের।

এর আগে দলীয় ৩৯৪ রানে দিনের প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। নিজের বলে নিজেই ক্যাচ ধরে মুমিনুল হককে ফেরান এনদুলুভু।

প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে প্রায় ১ বছর ৩ মাস এবং ১৪ ইনিংস পর টেস্ট ক্যারিয়ারের ৯ম সেঞ্চুরি তুলে নেন মুমিনুল। টাইগারদের মধ্যে লাল বলের ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি এখন তার। বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়কের ২৩৪ বলে ১৩২ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ১৪ চারে।

মুমিনুল ফেরার পর বড় ইনিংস খেলার আভাস দিলেও ২৩ বলে ৩ চারে ১৭ রান নিয়ে এইন্সলে এনদুলুভুর দ্বিতীয় শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরে যান মোহাম্মদ মিথুন। তবে জোড়া ধাক্কা সামলে দাপটের সঙ্গে ব্যাট করেন মুশফিক।

তাকে সঙ্গ দেন লিটন দাস। সিকান্দার রাজার চলে রেগিস চাকাবার গ্লাভসে বন্দী হওয়ার আগে ফিফটি তুলে নেন এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান। লিটনের ৯৫ বলে ৫৩ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৫ চারে।

এর আগে ২৫ রানে পিছিয়ে থেকে তৃতীয় দিন শুরু করে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ২৬৫ রানে।

জয়নিউজ/এসআই

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...