করোনা আতঙ্ক: তুলসীপাতা নিয়ে হুলস্থুল কাণ্ড

0

করোনা আতঙ্কের মাঝে এবার তুলসী পাতা খাওয়া নিয়ে গুজব ছড়িয়েছে একটি মহল। অনেকেই এ তুলসী পাতা খাওয়া নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও পোস্ট দিয়েছেন।

জানা যায়, ৭টি তুলসী পাতা খেলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবে না-এমন গুজবে গোপালগঞ্জ জেলায় তুলসী পাতা খাওয়ার হিড়িক পড়েছে। দুইদিন ধরে জেলার বিভিন্ন স্থানে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে অনেকেই ৭টি করে তুলসী পাতা খাচ্ছেন। তাদের ধারণা তুলসীপাতা খেলে তারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবেন না।

কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনের ওষুধ ব্যবসায়ী দিদারুল ইসলাম খান তার ফেসবুক পেইজে এলাকাবাসীকে তুলসীপাতা খাওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। পেইজে তিনি লিখেছেন, ৭টি তুলসীপাতা খেলে কেউ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবে না।

কলাবাড়ি ইউনিয়নের কুমুরিয়া গ্রামের অ্যাডভোকেট বিজন বিশ্বাস বলেন, শুক্রবার আমাদের গাছ ভরা তুলসীপাতা দেখেছি। শনিবার ভোরে দেখি তুলসী গাছে কোনো পাতা নেই। অনেকে আবার গাছ উপড়ে নিয়ে গেছে।

পিড়ারবাড়ি গ্রামে সুমন বালা বলেন, রোববার আমার মা লবণ দিয়ে ৭টি তুলসীপাতা খেতে বললো। খেলে নাকি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবো না। মায়ের নির্দেশে আমি ৭টি তুলসী পাতা খেয়েছি।

এক গণমাধ্যমকর্মী নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, তার এক নিকট আত্মীয় শনিবার তুলসি পাতা নিয়ে তাদের বাসায় আসেন। তাদেরকে ৭টি করে তুলসি পাতা খাবার জন্য বলেন এবং এগুলো খেলে নাকি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবেন না, এমনটি তাকে জানিয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. গুশান্ত বৈদ্য বলেন, ৭টি তুলসী পাতা খেলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবে না, এমন কথা আমি শুনিনি বা চিকিৎসা বিজ্ঞানে পাইনি। তবে কারো ঠাণ্ডাজনিত কাশি হলে তার জন্য তুলসী পাতা উপকারী।

গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জন নেওয়াজ মোহাম্মদ বলেন, এসব কথার কোনো ভিত্তি নেই। এসবই গুজব। তিনি গুজবে কান না দেওয়ার কথা উল্লেখ করে বলেন, এখনো পর্যন্ত করোনা ভাইরাস নিয়ে আমাদের দেশসহ বিভিন্ন উন্নত দেশগুলো গবেষণা করে যাচ্ছে।

জয়নিউজ/বিআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...