এবার ট্রেনভ্রমণেও নিষেধাজ্ঞা

0

করোনাভাইরাস ঠেকাতে দেশজুড়ে নেওয়া হচ্ছে নানা পদক্ষেপ। এবার এ ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এগিয়ে এসেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।

রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে, করোনা আক্রান্ত দেশ থেকে আসা যাত্রীদের কাছে অন্তত ১৫ দিন পর্যন্ত ট্রেনের কোনো টিকিট বিক্রি করা হবে না।

রেলওয়ের সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দেশের পরিবহন ব্যবস্থার গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম ট্রেন। প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন প্রান্তের হাজার হাজার যাত্রী ট্রেনে চেপে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাচ্ছেন। গণপরিবহনের মধ্যে ট্রেনেই যাত্রীসমাগম সবচেয়ে বেশি। তাই স্বাভাবিকভাবেই এখানে করোনাভাইরাসের ঝুঁকিটাও একটু বেশি। ঝুঁকির বিষয়টি মাথায় রেখেই রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

লিফলেট বিলি এবং অডিও বাজানো

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে আরো কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে রেলওয়ে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতামূলক তথ্য দিয়ে লিফলেট প্রকাশ এবং তা যাত্রীদের মধ্যে বিলি করা।

এছাড়া যাত্রীদের সচেতন করতে ট্রেনের মাইক্রোফোনে বাজানো হবে করোনা প্রতিরোধের সচেতনতামূলক অডিও।

ওয়াশরুমে টিস্যু ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার

ট্রেনের ওয়াশরুমের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা নিয়ে অনেকেরই আপত্তি আছে। তবে এ বিষয়ে এখনো সতর্ক অবস্থানে থাকছে রেলওয়ে।

এখন থেকে ট্রেনের প্রতিটি বগির ওয়াশরুমে থাকবে পর্যাপ্ত পরিমাণ টিস্যু। একইসঙ্গে যাত্রীদের হাত পরিষ্কার করার জন্য থাকবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার।

বসছে তাপমাত্রা পরিমাপ যন্ত্র

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে তাপমাত্রা পরিমাপ যন্ত্র বসানোরও সিদ্ধান্ত হয়েছে। ঢাকা, খুলনা এবং বেনাপোল রেলস্টেশনে স্থাপন করা হবে তাপমাত্রা পরিমাপ যন্ত্র।

জয়নিউজ

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...