বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে বোধনের ৫২তম সমাবর্তন সম্পন্ন

0

বোধন আবৃত্তি পরিষদ চট্টগ্রাম পরিচালিত বোধন আবৃত্তি স্কুলের দ্বিপঞ্চাশত্তম (৫২তম) সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ মার্চ)সন্ধে সাড়ে ৬টায় নগরের ফুলকির একে খান স্মৃতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মদিনে বোধন নিবেদন করে দ্বিপঞ্চাশতম (৫২তম) এ সমাবর্তন অনুষ্ঠান।

বোধনের সভাপতি আবদুল হালীম দোভাষের সভাপতিত্বে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের সভাপতি ডা. একিউএম সিরাজুল ইসলাম, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দক্ষিণ জেলার সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, সম্মিলিত আবৃত্তি জোটের সভাপতি আবৃত্তিশিল্পী অঞ্চল চৌধুরী ও লায়ন ফেরদৌস খান।

এতে স্বাগত বক্তব্য দেন বোধনের সহসম্পাদক মাইনুল আজম চৌধুরী। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন বোধন সদস্য লায়ন জাহাঙ্গীর মিয়া।

সিরাজুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধু কখনোই চাননি কাপুরুষ সংস্কৃতি কর্মী জন্ম নিক কিন্তু আজ সেটি আমাদের দুর্ভাগ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে।

‘আজ এখানে বঙ্গবন্ধুকে নিবেদিত ছোটদের আবৃত্তি শুনে আমার মন ভরে গেছে’, বলেন মফিজুর রহমান।

অনুষ্ঠানে ছয়মাসব্যাপী প্রশিক্ষণের উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে সনদপত্র দেওয়া হয়। শিশু ও বড়দের বিভাগের উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুকে নিবেদন করে একক ও দ্বৈত আবৃত্তি পরিবেশন করেন মাশতুরা মেহরীন স্নেহা, অন্বেষা বণিক,রাতুল নন্দী, জয়িতা বড়ুয়া,বাপ্পী বাড়ৈ প্রমুখ।

উৎপলকান্তি বড়ুয়ার রচনায় ও মাইনুল আজম চৌধুরীর নির্দেশনায় বড়দের বিভাগে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের সমবেত আবৃত্তি ‘শোনো মুজিবর’ পরিবেশন করে।

যশস্বী বণিক ও মৃত্তিকা চক্রবর্ত্তীর গ্রন্থণায় এবং হোসেন আরা তারিন ও ইতু সাহার নির্দেশনায় সমবেত আবৃত্তি ‘বঙ্গবন্ধু, অতঃপর বাংলাদেশ’ পরিবেশন করে শিশু বিভাগের উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন বোধন সদস্য সন্দীপন সেন একা ও মৃত্তিকা চক্রবর্ত্তী।

জয়নিউজ/বিআর

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...