বান্দরবানে বন্দুকযুদ্ধে সন্ত্রাসী বলি নিহত

0

বান্দরবানের পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে শীর্ষ সন্ত্রাসী আনোয়ার বলি নিহত হয়েছে। এ সময় পুলিশের ২ জন কনস্টেবল আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আজ শনিবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকালে বাইশারীর মাল্টা বাগান এলাকা থেকে পুলিশ তার গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা বাইশারী ইউনিয়নের মাল্টা বাগান এলাকায় অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা অপহরণ এবং ডাকাতির প্রস্তুতি নিয়ে অবস্থান করছিল। খবর পেয়ে পুলিশের একটি ঘটনাস্থলে পৌঁছালে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা গুলি চালায়। এ সময় পুলিশও আত্মরক্ষায় গুলি ছুড়লে বন্দুকযুদ্ধে আনেয়ার বাহিনীর সেকেন্ডইন কমান্ড শীর্ষ সন্ত্রাসী আনোয়ার বলি (৩৫) গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। আহত হন জ্যোতিময় চাকমা ও সুলতান আহমেদ নামে পুলিশের দুই কনস্টেবল।

এদিকে পুলিশ সকালে মাল্টা বাগান এলাকা থেকে গুলিবিদ্ধ বলির লাশ উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়ে দেয়। ঘটনাস্থল থেকে ১টি দেশি বন্দুক, ২ রাউন্ড গুলি এবং ৪টি গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়। নিহত বলির বাড়ি কক্সবাজারের মহেশখালীতে। এ ঘটনা নিয়ে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেসব্রিফিং করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার জানান, নাইক্ষ্যংছড়ি, বাইশারী, রামু, গর্জনিয়া ও ঈদগড় এলাকার মানুষ দুর্ধর্ষ ডাকাত আনোয়ারের অত্যাচারে অতিষ্ঠ। অস্ত্রধারী ডাকাত গ্রুপের অবস্থানের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে শীর্ষ সন্ত্রাসী আনোয়ার বলি গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়। বলির বিরুদ্ধে রামু থানায় ১টি হত্যা মামলা এবং নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় হত্যা, অপহরণ এবং ডাকাতির ৪টি মামলা রয়েছে। আহত পুলিশ কনস্টেবলদের বান্দরবান সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...