করোনা মোকাবেলায় একাত্তরের মতো ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে: মেয়র নাছির

0

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে (চসিক) মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, করোনাভাইরাস বৈশ্বিক মহামারিতে পরিণত হয়েছে। এর প্রভাবে বাংলাদেশও সংকটময় ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। মুক্তিযোদ্ধারা যেভাবে একাত্তর সালে মাতৃমুক্তিপণে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন একইভাবে করোনাভাইরাস মোকাবেলায়ও ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

ব্যক্তিগত উদ্যোগে মুক্তিযোদ্ধাদের উপহারসামগ্রী বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন।

শুক্রবার (১৭ এপ্রিল) সকালে নগরের জুবিলী রোডের দারুল ফজল মার্কেট প্রাঙ্গণে মুক্তিযোদ্ধাদের এসব উপহারসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এসময় মেয়র বলেন, আপদকালীন সময়ে সরকারি ত্রাণসামগ্রী যাতে অভুক্তদের ঘরে ঘরে দ্রুত পৌঁছে যায় সে ব্যাপারে ত্রাণ ব্যবস্থাপনার সঙ্গে সম্পৃক্তদের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। এটা হলো প্রত্যেকের মানবিক ও সামাজিক দায়বদ্ধতা।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর আহমদ, ডেপুটি কমান্ডার শহিদুল হক চৌধুরী, সহকারী কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র বিশ্বাস, মুক্তিযোদ্ধা-সাংবাদিক মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু, কোতোয়ালি থানা কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা সৌরেন্দ নাথ সেন, চান্দগাঁও থানা কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা মো. কুতুব উদ্দিন, পাঁচলাইশ থানা কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা আহমদ মিয়া, বন্দর থানা কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা কামরুল আলম, পতেঙ্গা থানা কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা জাকির হোসেন, আকবরশাহ থানা কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা মো. নুর উদ্দিন, ডেপুটি কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা মো. সেলিম উল্লাহ, হালিশহর থানা কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা কালাম চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল আলম, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মান্নান খান, মুক্তিযোদ্ধা জামাল আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল লতিফ, মুক্তিযোদ্ধা আলাউদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা প্রনাল চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আমীন, মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম দুলু, মুক্তিযোদ্ধা ইয়াকুব হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা রমজান মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল আজিম ও মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাফেজ।

পরে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন ও বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ আন্দরকিল্লার নগরভনে রক্ষিত সরকারি ত্রাণসামগ্রী বিতরণের প্রস্তুতি কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। এসময় চসিক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, মেয়রের একান্ত সচিব মো. আবুল হাশেম তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সুদীপ বসাক উপস্থিত ছিলেন।

জয়নিউজ/কাউছার/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...