লক্ষ্মীপুর ফের লকডাউনে

0

লক্ষ্মীপুর জেলাকে করোনাভাইরাস ঝুঁকি মোকাবেলায় ফের লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

সোমবার (১৮ মে) বিকাল সোয়া ৪টায় লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক (ডিসি) অঞ্চন চন্দ্র পাল এ তথ্য জানান।

এছাড়া জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে গণবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে মঙ্গলবার (১৯ মে) সকাল ৬টা থেকে পুনরায় লকডাউন কার্যকর হবে। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমক ঝুঁকি মোকাবেলায় ‘করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা কমিটি, লক্ষ্মীপুর’ এর সভার সিদ্ধান্ত ও সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে আলোচনাক্রমে সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ আইন অনুযায়ী লক্ষ্মীপুর জেলাকে অবরুদ্ধ বা পুনরায় লকডাউন ঘোষণা করা হলো।’ এর আগে ১২ এপ্রিল লকডাউন ঘোষণা করা হয়। এদিকে চলতি মাসের ১২মে থেকে দোকানপাট খোলা হলে ক্রেতা-বিক্রেতারা স্বাস্থ্যবিধি না মেনে কেনা-কাটা করায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুনরায় লকডাউন জোরদার করতে বাধ্য হয়। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত জেলার অভ্যন্তরে আন্তঃউপজেলা যাতায়াতের ক্ষেত্রেও একই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ হবে বলা হয়েছে। সবধরনের গণপরিবহন ও জনসমাগম আগের মতো বন্ধ থাকবে। তবে জরুরি পরিসেবা যেমন চিকিৎসা, খাদ্যদ্রব্য, শিশু খাদ্য পরিবহনে নিয়োজিত পরিবহন, কৃষিপণ্য উৎপাদন, মৎস্য সরবরাহ ও সংগ্রহ ইত্যাদি এর আওতাবহির্ভুত থাকবে।

জেলা প্রশাসক জয়নিউজকে জানান, সর্বসাধারণের স্বার্থে পুনরায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে পুনরায় লকডাউন কার্যকর হবে। এ আইন অমান্য করা হলে ভ্রাম্যমাণ আদালতে বিচার করা হবে।

জানা গেছে, এরমধ্যে এক ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। এছাড়া সদর-২৮, রামগঞ্জ-২২, কমলনগর- ৮, রামগতি- ১০, রায়পুর- ৩১জনসহ গত কয়েকদিন ধরে লক্ষ্মীপুরে ৯৯ জন করোনায় আক্রান্ত হন।

এরমধ্যে ও দিনের বেলায় ঈদের কেনা-কাটা জমে উঠেছে দোকানগুলোতে। দোকানে পুরুষের চাইতে নারীদের উপচে’ পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। এ জন্য বাজার ব্যবসায়ীসহ সচেতন নাগরিকদের দাবীতে ফের লকডাউন দিতে বাধ্য হয় প্রশাসন।

জয়নিউজ/আতোয়ার/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...