ডাক্তার-র‌্যাব-পুলিশসহ চট্টগ্রামে আরও ৯০ জনের করোনা পজিটিভ

0

চট্টগ্রামে আরও ৯০ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে নগরের ৭৭ জন এবং বিভিন্ন উপজেলার ১৩ জন। তাঁদের মধ্যে ডাক্তার, শিশু, র‌্যাব, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্য রয়েছেন।

শুক্রবার (২২ মে) সকালে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন বৃহস্পতিবার (২১ মে) রাতের করোনা ফলাফল গণমাধ্যমে জানান। তিনি বলেন, করোনা পরীক্ষার ৩ ল্যাবে ৪৬২ জনের নমুনা পরীক্ষায় জেলার ৯০ জনের করোনা পজিটিভি এসেছে।

দুই ল্যাব থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, চার চিকিৎসকের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে দুই চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের— একজন ৪০ বছর বয়সী পুরুষ এবং অপরজন ২৯ বছর বয়সী মহিলা। এছাড়া রয়েছেন পাথরঘাটা এলাকার ৩২ বছর বয়সী এক চিকিৎসকও। এছাড়া হাটহাজারীতেও ৩৪ বছর বয়সী একজন ডাক্তার আক্রান্ত হয়েছেন বৃহস্পতিবারের পরীক্ষায়। অন্যদিকে করোনাভাইরাস শনাক্ত হল দুই মাসের এক শিশুর শরীরেও।

এছাড়া বিশেষায়িত বাহিনী র‍্যাব-৭ এর চার সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এরা হলেন ৩৭ বছর বয়সী এএসআই, ৩৫ বছর বয়সী কর্পোরাল এবং ৩৭ বছর বয়সী এক সিপাহী ও অন্যজন ৩২ বছর বয়সী। চট্টগ্রামের ফায়ার সার্ভিসে কর্মরত দুই সদস্যও আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়— এদের একজনের বয়স ৩০, অন্যজনের ৩৩।

বিআইটিআইডি’র ল্যাব
এই ল্যাবে ২৬৪ নমুনায় ২০ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এর মধ্যে ১০ জন নগরের ও ১২ জন বিভিন্ন উপজেলার।

আক্রান্তদের মধ্যে নগরে র‌্যাব-৭ এর ৩১ বছর বয়সী পুরুষ, সবুজবাগ এলাকার ৩৬ বছর বয়সী পুরুষ, শেরশাহ কলোনি এলাকার ৪০ বছর বয়সী পুরুষ, হালিশহর এলাকার ৫২ বছর বয়সী পুরুষ, কোরবানিগঞ্জ এলাকার ৪৬ বছর বয়সী পুরুষ বয়স, ৩০ বছর বয়সী এক পুলিশ সদস্য, হালিশহর এলাকার ৭৪ বছর বয়সী পুরুষ এবং সাগরিকা এলাকার ৪৫ বছর বয়সী নারী। এছাড়া করোনা শনাক্ত হয়েছে দুই মাসের এক শিশুর শরীরেও।

উপজেলাগুলোর মধ্যে সন্দ্বীপ উপজেলার তিনজন পুরুষের মধ্যে দু’জন সন্দ্বীপ থানার। থানার দুই জনের বয়স ৩০ ও ৪২ বছর। হাটহাজারী উপজেলার এক ডাক্তারসহ ৬ জন। তার মধ্যে ডাক্তারের বয়স ৩৪ বছর, তিনি একজন নারী। বাকি ৫ জনের একজন ২৮ বছর বয়সী নারী। একজনের বয়স জানা যায়নি। বাকি চারজনের একজন ২৫ বছর, একজন ৩০ বছর, একজন ৫৭ বছরও একজন ৩৪ বছর বয়সী তারা সকলেই পুরুষ। এছাড়া সীতাকুন্ড উপজেলার বারবকুন্ডের ২৬ বছর বয়সী একজন পুরুষ। রাউজান উপজেলায় ৪৪ ও ৪০ বছর বয়সী দুইজন পুরুষ।

চমেক ল্যাব
এই ল্যাবে ১২৯ নমুনায় ৭০ জনের দেহে করোনার সংক্রমণ পাওয়া যায়। এর মধ্যে নগরের ৬৬ জন ও উপজেলার তিনজন এবং ভিন্ন জেলার একজন বাসিন্দা রয়েছেন।

শনাক্ত হওয়া ৭০ জনের মধ্যে সীতাকুণ্ডের দারোগাহাট রোডের তিনজন— এদের একজন ৬১ বছর বয়সী পুরুষ ও দুজন নারী। এই দুই নারীর একজনের ৩১ বছর এবং আরেকজনের বয়স ৫০ বছর। এছাড়া মুরাদপুর এলাকার ৬২ বছর বয়সী পুরুষ, আন্দরকিল্লার ১৬ বছর বয়সী কিশোর, কাঠগড় এলাকার ৩২ বছর বয়সী পুরুষ, ঝাউতলা এলাকার ৫৫ বছর বয়সী নারী, কোতোয়ালী মোড় এলাকার ৪২ বছর বয়সী পুরুষ, হালিশহর এলাকার ৪২ বছর বয়সী পুরুষ, দেওয়ান বাজার এলাকার ৫০ বছর বয়সী পুরুষ, চকবাজার এলাকার ৬৭ বছর বয়সী পুরুষ, চমেক হাসপাতালের ১৬নং ওয়ার্ডের ৪০ বছর বয়সী এক নারী চিকিৎসক, হালিশহর বি ব্লক এলাকার ১৮ বছর বয়সী নারী, ইপিজেড গেট এলাকার ৪৫ বছর বয়সী পুরুষ, আগ্রাবাদ এলাকার ৩৩ বছর বয়সী পুরুষ, হালিশহরের ৬০ বছর বয়সী নারী, মোহাম্মদপুর এলাকার ৪২ বছর বয়সী পুরুষ, টেক্সটাইল এলাকার ৩৩ বছর বয়সী পুরুষ, চকবাজার এলাকার ৪০ বছর বয়সী পুরুষ, হালিশহরের ৩৬ বছর বয়সী এক পুরুষ ও খুলশী এলাকায় ২৭ বছর বয়সী এক পুরুষের শরীরে।

এছাড়া ফরিদা পাড়া এলাকার ২৮ ও ৫২ বছর বয়সী দুই পুরুষ এবং ৩০ বছর বয়সী নারী, সিএমসির ৪০ বছর বয়সী পুরুষ, বন্দর এলাকার ৫৫ বছর বয়সী পুরুষ, চকবাজার এলাকার ২২ বছর বয়সী পুরুষ, নেভি হাসপাতালের ৪৮ বছর বয়সী পুরুষ, বাকলিয়ার ৫৩ বছর বয়সী পুরুষ, ফ্রিপোর্ট এলাকার ৩২ বছর বয়সী পুরুষ, পটিয়ার ৪২ বছর বয়সী পুরুষ, চান্দগাঁওয়ের মৌলভী পুকুরপাড় এলাকার ৩৯ বছর বয়সী পুরুষ, চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের ৪১ বছর বয়সী নারী, ইপিজেড নিউমুরিং এলাকার ২৮ বছর বয়সী নারী, নেভি হাসপাতালের ৩৪ বছর বয়সী এক নারীর শরীরে।

বাকলিয়ার বগারবিল এলাকার ২৮ বছর বয়সী পুরুষ, চরপাথরঘাটা এলাকার ২২ বছর বয়সী পুরুষ, জেনারেল হাসপাতালের ৫৪ বছর বয়সী পুরুষ, খুলশী ১৩নং ওয়ার্ডের ৩৫ বছর বয়সী পুরুষ, ২৫নং কোরবানীগঞ্জ এলাকার ৪৬ বছর বয়সী নারী, আগ্রাবাদের ৪৫ বছর বয়সী পুরুষ, চমেক হাসপাতালের ৫৭ বছর বয়সী নারী, বন্দর ফকিরহাট এলাকার ২২ বছর বয়সী পুরুষ, পতেঙ্গার ২২ বছর বয়সী নারী, কালিশাহ এলাকার ১২ বছর বয়সী কিশোরী, ফিরিঙ্গিবাজার এলাকার ৪৮ বছর বয়সী পুরুষ, ফায়ার সার্ভিসের ৩০ ও ৩৩ বছর বয়সী দুই কর্মীর নমুনা পজিটিভ এসেছে।

চমেক হাসপাতালের ১৬নং ওয়ার্ডের এক চিকিৎসকসহ লালখান বাজার এলাকার ৪০ বছর বয়সী একজন, চমেক হাসপাতালের ব্লক ২৬নং ওয়ার্ডের ২১ বছর বয়সী পুরুষ, রাজাখালী এলাকার ৩৯ ও ৪৩ বছর বয়সী দুইজন পুরুষ, চমেক হাসপাতালের গাইনি বিভাগের ২৯ বছর বয়সী এক নারী চিকিৎসক, আগ্রাবাদ এলাকার ৪৪ বছর বয়সী একজন পুরুষ এবং মনসুরাবাদ এলাকার ৫৫ বছর বয়সী পুরুষের দেহেও করোনা শনাক্ত হয়েছে।

সাতকানিয়া উপজেলার ৫৪ বছর বয়সী পুরুষ এবং ফটিকছড়ি উপজেলার ৪৭ বছর বয়সী নারী। এদিকে আরও বেশ কয়েকজনের এলাকার নাম জানা যায়নি। এদের মধ্যে রয়েছেন ৩৮, ৪৫, ৫২, ২১, ৫০, ৫৫, ৪৫ বছর বয়সী সাতজন পুরুষ।

এছাড়া সিভাসু’তে ৬৯ নমুনা পরীক্ষায় ৮ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাঁদের মধ্যে রঙামাটির ৩ জন ও খাগড়াছড়ির ৫ জন রয়েছেন।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...