সন্ত্রাসীদের গুলিতে জেএসএসের কালেক্টর নিহত

0

কাপ্তাইয়ের ওয়াগ্গা ইউনিয়নে পদ্মকুমার চাকমা (৫০) নামে জেএসএসের কালেক্টরকে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি করে হত্যা করেছে পাহাড়ের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা।

সোমবার (৮ জুন) সকাল প্রায় ৯টার দিকে বড়ইছড়ি-ওয়াগ্গা সড়কের ভাইজ্যাতলি পাগলি মধ্যমপাড়া এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত পদ্মকুমার চাকমা রাঙামাটি সদরের ভেদভেদি উদনন্দী আদামের মৃত সুরেশ চন্দ্র চাকমার ছেলে।

পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে সকাল প্রায় ১০ টায় কাপ্তাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দীন সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেন।

এদিকে, নিহতের স্ত্রী এবং তার মেয়ে ১১টার পর ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে নিহতের লাশ শনাক্ত করেন।

নিহতের স্ত্রী রূপা চাকমা জয়নিউজকে বলেন, তার স্বামী একসময় আঞ্চলিক দল জেএসএস কর্মী ছিলেন। তার প্রতিপক্ষরা তাকে হত্যা করতে পারে বলে তিনি জানান।

ওসি নাসির উদ্দীন জয়নিউজকে বলেন, নিহত পদ্মকুমার চাকমা সকাল ৯ টায় পাগলি মধ্যমপাড়ার চা ও মুদি দোকানদার নতুন চন্দ্র তনচংগ্যার দোকানে বসে ছিল। এসময় তিনজন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা এসে প্রথমে তাকে দোকানের বারান্দায় গুলি করে। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তিনি দোকানের ভিতরে ঢুকে আত্মরক্ষার চেষ্টা করলে অস্ত্রধারীরা দোকানের পেছনে দরজা লাথি মেরে ভেঙে ভেতরে ঢুকে তাকে আবারো গুলি করলে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছে বলে কাপ্তাই থানার ওসি জানান।

স্থানীয় দোকানদার নতুন চন্দ্র তনচংগ্যা জয়নিউজকে বলেন, নিহত পদ্মকুমার মাঝে মাঝে তার দোকানে এসে বসতো। আজ (সোমবার) সকাল ৯ টায় তিনি দোকানের বাহিরে বারান্দায় বসে কলা খাচ্ছিলেন। সে সময় তিনজন অস্ত্রধারী সামনে এসে তার ওপর গুলি চালিয়ে তাকে হত্যা নিশ্চিত করে পাহাড়ের দিকে চলে যায়। প্রকাশ্য দিবালোকে একব্যক্তিকে হত্যার পর ওই এলাকায় স্থানীয় জনগণের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাঙামাটি হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

জয়নিউজ/নজরুল/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...