কাট্টলীতে ৬টি রাস্তা খোলা থাকবে: মেয়র নাছির

0

নগরের লকডাউনকৃত ১০নং কাট্টলী ওয়ার্ডে ২০টি প্রবেশ পথের মধ্যে ৬টি রাস্তা খোলা থাকবে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

মঙ্গলবার (১৬ জুন) চসিক সম্মেলন কক্ষে লকডাউনের কর্মপরিকল্পনা নিয়ে এক সমন্বয় বৈঠকে তিনি এ কথা জানান।

এসময় মেয়র বলেন, লকডাউনের আওতামুক্ত থাকবে সাগরিকার বিসিক শিল্প এলাকা। প্রতিদিন রিকশাভ্যানের মাধ্যমে ন্যায্য মূল্যে কাঁচাবাজার সরবরাহ করা হবে। ধর্মীয় ইবাদত ঘরে থেকেই আদায় করতে হবে।

মেয়র আরো বলেন, এলাকাবাসীর সার্বিক সহায়তার জন্য থাকবে সিটি কপোরেশনের একাধিক কন্ট্রোলরুম ও এলাকাভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবক টিম। জরুরি প্রয়োজনে চসিকের কন্ট্রোল রুমের নম্বরসমূহে ০৩১-৪৩১৫১৩৬৮, ০৩১-৪৩১৫১৩৬৯, ০৩১-৪৩১৫১৩৭০, ০৩১-৪৩১৫১৩৭১, ০৩১-৪৩১৫১৩৭২, মোবাইল- ০১৮১৯-০৫৬৮৪৪, ০১৮১১-৮৮৭০৮৪ নম্বরে যোগাযোগ করা যাবে।

চসিক মেয়র বলেন, চসিকের ব্যবস্থাপনায় কোভিড ও নন-কোভিড রোগীদের চিকিৎসা ও হাসপাতালে পাঠানোর জন্য সার্বক্ষণিক অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা থাকবে। লকডাউন এলাকায় অবস্থানকারী সব সরকারি, বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারী সাধারণ ছুটির আওতায় থাকবে। এলাকাবাসীকে সরকারি স্বাস্থ্যবিধি ও চসিকের প্রদর্শিত নিয়মকানুন মেনে লকডাউন কার্যকর করার জন্য অনুরোধ জানান মেয়র নাছির।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর ড. নিছার উদ্দিন আহমদ মঞ্জু, চসিক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, বাংলাদেশ ইনফেন্ট্রি রেজিমেন্ট সিও লে. কর্ণেল মাহবুব, চট্টগ্রামে দায়িত্বপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. মোস্তফা খালেদ আহমদ, সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি, সিএমপির এসপি মো. কামরুল ইসলাম, মেয়রের একান্ত সচিব মো. আবুল হাশেম, চসিক প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী, ব্রাকের আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক মো. হানিফ উদ্দিন, চসিকের ডা. মো. আলী, প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ রেজাউল করিম, আইটি কর্মকর্তা ইকবাল হাসান, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ডা. সরোয়ার আলম, সহকারী পরিচালক স্বাস্থ্য কামরুল আজাদ।

জয়নিউজ/কাউছার/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...