করোনা ধ্বংসে বিজ্ঞানীদের নতুন দিশা ‘টি সেল’

0

সারা বিশ্বের এক কোটিরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে । আক্রান্তের মতোই লাফিয়ে লাফিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে এখন ৫ লাখের কাছাকাছি। শেষমেষ এখন শরীরের অ্যান্টিবডিকে কাজে লাগিয়ে করোনার টিকিৎসার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। একইভাবে এগিয়ে চলেছে করোনার প্রতিষেধক তৈরির কাজ।

এর মধ্যে অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীদের তৈরি করোনার প্রতিষেধকটির উৎপাদনের কাজ ইতোমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে ব্রিটিশ ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্ট ‘অ্যাস্ট্রাজেনেকা’। ভারতেও এই করোনা টিকার উৎপাদন শুরু করতে চলেছে বিশ্বের বৃহত্তম টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থা সিরাম ইনস্টিটিউট। কিন্তু এরই মধ্যে ভাইরাসকে প্রতিহতকারী শক্তিশালী বিশেষ কোষের সন্ধানের কথা জানালেন বিজ্ঞানীরা। খবর বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডস

ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল বিজ্ঞানীর দাবি, তারা এমন এক ধরনের শক্তিশালী কোষের সন্ধান পেয়েছেন, যেগুলো করোনাভাইরাসকে প্রতিহত করতে সক্ষম।

মার্কিন বিজ্ঞানীরা এই বিশেষ কোষের নাম দিয়েছেন ‘টি সেল’ । বিজ্ঞানীদের দাবি, ১০ জনের মধ্যে ৮ জন করোনা আক্রান্তের শরীরেই এই ভাইরাস নিষ্ক্রিয়কারী শক্তিশালী ‘টি সেল’ এর উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে।

টি-সেল হলো এক ধরনের শ্বেত রক্তকণিকা যা আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা ও তার (ইমিউনো সিস্টেম) কার্যক্রমের অন্যতম অংশ। এই টি-সেল শরীরে প্রবেশ করা ভাইরাস, ব্যাক্টেরিয়া বা ছত্রাকের সংক্রমণকে প্রতিহত করে আমাদের সুস্থতা বজায় রাখে।

মার্কিন বিজ্ঞানীরা করোনা আক্রান্তের শরীর থেকে এই শ্বেত কণিকা (টি-সেল) সংগ্রহ করে সেগুলোকে পরীক্ষাগারে কৃত্তিম উপায়ে বিভাজিত ও বৃদ্ধি ঘটানোর কথা ভাবছেন। এরপর ওই কোষগুলোর জিনগত পরিবর্তন ঘটিয়ে সেগুলোকে করোনাভাইরাসকে ধ্বংস করার উদ্দেশ্যে ব্যবহারের কথা ভাবছেন তারা।

জয়নিউজ/পিডি

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...