চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন

0

স্টাফ রিপোর্টার:মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদের চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গতকাল শনিবার সাবেক মন্ত্রী মরহুম জহুর আহম্মদ চৌধুরীর দামপাড়াস্থ বাড়িতে “মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদের” সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মুক্তিযোদ্ধার অন্যতম সংগঠক, লিবারেশন কাউন্সিলের চেয়ারম্যান, সাবেক মন্ত্রী জহুর আহম্মেদ চৌধুরীর সন্তান, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহব্বায়ক ও “বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারবর্গের ” চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন চৌধুরী এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা পরিবর্গের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক মোহাম্মদ সেলিম ও বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারবর্গের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য গোলাম নবীর সভাপতিত্বে উক্ত প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে উত্তম কুমার বড়–য়াকে আহ্বায়ক, চিংকু পালিত, খালেদ মোহাম্মদ আলী, শিক্ষানবিশ আইনজীবী এইচএম রিজু, এডভোকেট শিবাজী চৌং ও সোলামান চৌং সাদিতকে যুগ্ম আহ্বায়ক এবং হাজী মোহাম্মদ সেলিম রহমানকে সদস্য সচিব ও সিরাজুল উল মৌলা বীর উত্তমের সন্তান গোলাম রসুল নিশান, মিনহাজুল আমিন মুন্নাকে যুগ্ম সচিব করে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক মন্ত্রী জহুর আহম্মেদ চৌধুরীর সন্তান, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহব্বায়ক জসিম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, “একটি রাজনৈতিক পন্থায় একটি সরকার পরিবর্তন হয় দুটি ধারায়। একটি নির্বাচনের মাধ্যমে ,আরেকটি গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে। ১৯৭৫ সালে তার কোনটা না হয়ে, ১৫ আগস্টের রাতের অন্ধকারে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের মধ্য দিয়ে পৃথিবীর সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালীর সরকার বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা হয়। পৃথিবীর জগন্যতম হত্যাকান্ড মধ্যে এটা অন্যতম।”

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু সেদিন যুদ্ধ বিদ্ধস্ত দেশে এসে পেয়েছিল ষাট হাজার যুদ্ধ শিশু। ২ লক্ষ মা বোনের ইজ্জত দিয়ে এদেশ স্বাধীন করেছিল সে বীরঙ্গনা। ৩০ লক্ষ শহীদ পরিবার, কালভার্ট, স্কুল কলেজ সম্পূর্ণ বিদ্ধস্ত ছিল। বঙ্গবন্ধু ৭২ এর সরকার সেটাকে নিয়ন্ত্রনে এনে দেশে শান্তি বিরাজ করছিল।

সম্মেলন প্রস্তুতি সভায় বক্তব্য রাখেন, শওকত মাসুম, মঞ্জু মিয়া, নাসির খাঁন, উজ্জ্বল চৌধুরী, বাহার খাঁন। এসময় বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সাফল্য, অগ্রগতি, অগ্রযাত্রা ও উন্নয়নের জয়গান করেন এবং আসন্ন সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগকে জনগণের মূল্যবান ভোট দিয়ে পুনরায় নির্বাচিত করার আহ্বান জানান।

প্রস্ততি কমিটি গঠন শেষে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদ ও বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারবর্গের একত্রিত ভাবে ১৫ আগস্টের কর্মসূচী হিসেবে আগামী ৩১ জুলাই চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে শোকের মাসকে শক্তিতে রূপান্তর করার জন্য মোমবাতি প্রজ্জ্বলিত করবে। এছাড়াও পরবর্তীতে ১৫ আগস্ট উপলক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাসব্যাপি আলোচনা সভা ও শাহাদাত বার্ষিকী অনুষ্ঠিত হবে।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...