এনকাউন্টারে থামল কুখ্যাত গ্যাংস্টার বিকাশ দুবের জীবনরথ

0

ভারতের কুখ্যাত গ্যাংস্টার বিকাশ দুবে পুলিশের সঙ্গে এনকাউন্টারে মারা গেছে। এর আগে বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) মধ্য প্রদেশের মহাকাল মন্দির থেকে গ্যাংস্টার বিকাশ দুবেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, শুক্রবার (১০ জুলাই) সকালে মধ্য প্রদেশ থেকে উত্তর প্রদেশের কানপুর যাওয়ার পথে পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের (এসটিএফ) সঙ্গে এনকাউন্টারে তার মৃত্যু হয়।

সূত্র জানায়, বিকাশ দুবেকে কানপুর নেওয়ার পথে পুলিশের গাড়িটি বৃষ্টির কারণে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করার পর, সে পুলিশের কাছ থেকে অস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। পরে, পুলিশকে লক্ষ করে গুলি ছুড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে বিকাশের মৃত্যু হয়।

টাইমস অব ইন্ডিয়াকে রাজ্য পুলিশের সিনিয়র কর্মকর্তা মোহিত আগারওয়াল বিকাশ দুবের মৃত্যুর ঘটনা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে শুক্রবার (৩ জুলাই) বিকাশকে গ্রেফতারে তার কানপুরের বাড়িতে অভিযান চালাতে গিয়ে আট পুলিশ সদস্যের মৃত্যু হয়।

বিকাশ দুবের উত্থান:

বিকাশ দুবে উত্তর প্রদেশের কানপুর দেহাত জেলার অধিবাসী। ১৯৯০ সালে তার বিরুদ্ধে প্রথম হত্যা মামলার রেকর্ড পাওয়া যায়। তারপর ৩০ বছরে তার বিরুদ্ধে ৬০টি মামলা দায়ের হয়। তার নিজস্ব গ্যাং নিয়ে মূলত সে জমি দখলের কাজ করতো। ১৯৯৫ সালে সে স্থানীয় বহুজন সমাজ পার্টিতে (বিএসপি) যোগ দেয়। সেখান থেকে হরিকৃষন শ্রীবাস্তব নামে স্থানীয় ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নেতার সঙ্গে তার সখ্যতা হয় এবং ওই নেতার ছত্রছায়ায় বিকাশ তার সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতে থাকে। ২০০১ সালে সন্তোষ শুক্লা নামে বিজেপি নেতা ও রাজ্যের এক মন্ত্রীকে পুলিশ স্টেশনের মধ্যেই খুন করে আলোচনায় আসে বিকাশ দুবে। বিভিন্ন মামলায় সে কারাভোগ করলেও রাজনৈতিক চাপের মুখে কয়েকদিন আগে সে মুক্ত হয়। সর্বশেষ আট পুলিশ হত্যার পর থেকে তার ব্যাপারে ‘জিরো টলারেন্স’ ঘোষণা করে রাজ্য কর্তৃপক্ষ এবং পুলিশ প্রশাসন।

জয়নিউজ/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...