পাহাড়ে এক সপ্তাহে ৭ জনকে অপহরণের অভিযোগ

0

এক সপ্তাহের ব্যবধানে পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ি ও রাঙামাটির তিন উপজেলা থেকে ৭ জনকে অপহরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)। সংগঠনের প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের প্রধান নিরন চাকমা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ অভিযোগ করা হয়।

ইউপিডিএফের অভিযোগ, এম এম লারমা সমর্থিত আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (পিজেএসএস) এ অপহরণের সঙ্গে জড়িত। তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে পিজেএসএস।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, গত ১৯ সেপ্টেম্বর খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার বাবুছড়া ইউনিয়নের শৈব রঞ্জন চাকমার ছেলে মোহন লাল চাকমা, ২১ সেপ্টেম্বর মেরুং ইউনিয়নের তীর্থ মোহন ত্রিপুরার ছেলে চন্দন ত্রিপুরা, ২২ সেপ্টেম্বর বোয়ালখালী ইউনিয়নের রতন কুমার চাকমার ছেলে কালা চাকমা, ২৫ সেপ্টেম্বর রাঙামাটির নানিয়াচর উপজেলার প্রভাত চন্দ্র চাকমার ছেলে জয়ধন চাকমা, বড়পেদা চাকমার ছেলে ভাগ্যধন চাকমা, মুরতি রঞ্জন চাকমার ছেলে অনাময় চাকমা এবং ২৬ সেপ্টেম্বর বাঘাইছড়ি উপজেলার রুপকারী ইউনিয়নের নোয়ারাম চাকমাকে অপহরণ করা হয়। এর মধ্যে কয়েকজনকে মুক্তিপণের বিনিময়ে ছেড়ে দেওয়া হলেও চন্দন ত্রিপুরাকে মুক্তিপণের টাকা না পাওয়ায় হত্যা করা হয়েছে।

এদিকে ইউপিডিএফের এই অভিযোগ অস্বীকার করে এমএন লারমা সমর্থিত পিজেএসএস কেন্দ্রীয় কমিটির সহকারী তথ্য ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক প্রশান্ত চাকমা জানান, উল্লেখিত এলাকাসমূহের কেউ অপহরণের শিকার হয়েছে বলে আমার জানা নেই। যদি কেউ অপহরণের শিকার হয়েও থাকে তাহলে তা ইউপিডিএফই করেছে বলে উল্টো অভিযোগ করেন তিনি।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...