বিএমএ নেতা ডা. ফয়সলকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন

0

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) চট্টগ্রাম শাখার সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. ফয়সল ইকবাল চৌধুরীকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদ ও সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (২৫ জুলাই) দুপুর ১২টায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (চমেক) প্রধান ফটকে এই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিএমএ-চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি অধ্যাপক ডা. মুজিবুল হক খান সভাপতিত্ব করেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, গত শনিবার আনুমানিক সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ৮টি মোটরসাইকেলে করে ২০/২২ জন সন্ত্রাসী ডা. মো. ফয়সল ইকবাল চৌধুরীর মেহেদীবাগস্থ বাসভবনের সামনে গিয়ে গুলি করে হত্যার হুমকী প্রদানের মতো ন্যাক্কারজনক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ঘটান।পুরো ঘটনাটি সিসিটিভি ক্যামেরা ফুটেজে স্পষ্ট ধরা পড়ে। এ ব্যাপারে তিনি ১৮ জুলাই রাতেই চকবাজার থানায় জিডি করেন। এসময় তারা এখন পর্যন্ত কোনো সন্ত্রাসীকে আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী গ্রেপ্তার করতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

সমাবেশে বিএমএ- চট্টগ্রাম শাখার সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. ফয়সল ইকবাল চৌধুরী বলেন, দেশে করোনা রোগীর প্রদুর্ভাব শুরু থেকেই চিকিৎসকদের নিম্নমানের সুরক্ষা সামগ্রী সরবরাহের বিরুদ্ধে ও চট্টগ্রামের আপামর জনসাধারণের চিকিৎসাসেবার অপ্রতুলতা ও অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে যখন আমি সোচ্চার ছিলাম, তখনই সরকারের দায়িত্বশীল পদে থাকা জনৈক ব্যক্তি আমি কিভাবে দলের পদে থেকে অব্যবস্থাপনা ও সুরক্ষা সামগ্রীর অপ্রতুলতার কথা বলি এবং কিভাবে এখনও দলের পদে বহাল আছি, সেসব উল্লেখ করে পদ থেকে বহিষ্কারের হুমকি দেন।

বিএমএ-চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি অধ্যাপক ডা. মুজিবুল হক খান বলেন, চিকিৎসক সমাজের প্রানপ্রিয় নেতা ডা. মো. ফয়সল ইকবাল চৌধুরীর বাসভবনে গিয়ে হত্যার হুমকি প্রদান, তা শুধু ব্যক্তি ফয়সলকে হুমকি নয়, এই হুমকি চট্টগ্রামের সমগ্র চিকিৎসক সমাজের প্রতি সন্ত্রাসীদের হুমকি।

তাই তিনি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানিয়ে বলেন, অনতিবিলম্বে সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে। অন্যথায় কোরবানির ঈদের পরে চট্টগ্রামের আপামর চিকিৎসক সমাজকে সঙ্গে নিয়ে চট্টগ্রাম বিএমএ কঠোর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবে।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন চমেক শিক্ষক সমিতির সহসভাপতি ডা. মনোয়ার উল হক শামীম, চমেক পোস্ট গ্রাজুয়েট ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ডা. সাইফুল ইসলাম, সাউদার্ন মেডিকেল কলেজ স্বাচিপ-এর আহ্বায়ক ডা. আতিকুর রহমান বাপ্পী, বিজিসি ট্রাস্ট স্বাচিপ নেতা ডা. বাবর চৌধুরী।

এছাড়াও এতে চমেক-আইডিএ সভাপতি ডা. ওসমান ফরহাদ, চট্টগ্রাম মা ও শিশু মেডিকেল কলেজ আইডিএ সভাপতি ডা. শহিদ, ইউএসটিসি-আইডিএ সভাপতি ডা. মোস্তফা আশিক, বিজিসি ট্রাস্ট মেডিকেল কলেজ-আইডিএ’র পক্ষে ডা. বাবলু ধর, সাউদার্ন মেডিকেল কলেজ-আইডিএ সভাপতি ডা. ফাহাদ বিন তৈয়ব, চমেকসু ভিপি ডা. এম এ আওয়াল রাফী, চমেক ছাত্রলীগ সভাপতি ডা. হাবিবুর রহমান বক্তব্য রাখেন।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...