ফারুক ইকবালের হাউস বদল

নতুন পত্রিকা দেশ রূপান্তর

0

চট্টগ্রামের বিশিষ্ট সাংবাদিক ফারুক ইকবাল নতুন প্রকাশিতব্য জাতীয় দৈনিক দেশ রূপান্তরে যোগদান করেছেন। তিনি এ পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে যোগদান করেন। নিয়েছেন চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধানের দায়িত্ব। শুক্রবার (২৮ সেপ্টেম্বর) তিনি তার ব্যক্তিগত ফেসবুকে অ্যাকাউন্টে বিষয়টি জানান।

বাংলাদেশের সাংবাদিকতার নেপথ্য’র মানুষ হিসেবে পরিচিত অমিত হাবিব যার সম্পাদক। ২০০৯ সালে কালের কণ্ঠে নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে যোগ দেওয়ার পর পত্রিকাটি প্রকাশে মুখ্য ভূমিকা পালন করেন অমিত হাবিব। অল্প সময়ের মধ্যেই রেকর্ড গড়ে প্রচারসংখ্যা আড়াই লাখ ছাড়িয়ে যাওয়া এ পত্রিকায় ২০১৩ সাল থেকে উপদেষ্টা সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন অমিত হাবিব। ২০০৩ সালে দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকায় প্রধান বার্তা সম্পাদক হিসেবে যোগ দেন খ্যাতিমান এই সাংবাদিক। 

ফারুক ইকবাল সর্বশেষ বাংলাদেশের খবরের বিশেষ প্রতিনিধি ও চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ফারুক ইকবালের সাংবাদিকতায় হাতেখড়ি ১৯৮৬ সালে দৈনিক পূর্বকোণে শিক্ষানবিশ হিসেবে। এরপর হয়েছেন সে পত্রিকার চিফ রিপোর্টার! দীর্ঘদিন নেতৃত্ব দিয়েছেন কালেরকণ্ঠের চট্টগ্রাম ব্যুরোর বিশেষ প্রতিনিধি হয়ে।

শুক্রবার ফারুক ইকবাল ফেসবুকে লিখেন, ‘বন্ধুরা, আজ আমি এখানে কোন কবিতা লিখতে বসিনি। লিখছি, দীর্ঘ সময় ধরে বুকের ভেতরকার তেষ্টায় জলের সন্তরণ ও পরিবর্তনের অণু গল্প। এ গল্প বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে কোন এক নতুনের বার্তাবাহী, ভিন্ন ধারার দৈনিক ‘দেশ রূপান্তর’- এর শুভ আগমনীর গল্প। যার রূপকার ও স্রষ্টা এ সময়কার সবচে মেধাসম্পন্ন, অভিজ্ঞ ও ইতোপূর্বের একাধিক পাঠকপ্রিয় দৈনিকের নেপথ্যের সফল নায়ক শ্রদ্ধাভাজন সাংবাদিক অমিত হাবিব। ভোরের কাগজ, যায় যায় দিন, সমকাল হয়ে সর্বশেষ তিনি কালের কন্ঠের উপদেষ্টা সম্পাদক হিসেবে গুরুদায়িত্ব পালন করেন। যেখানে তাঁর সাফল্য ছিল ঈর্ষণীয় এবং সুধী পাঠক সমাজের কাছে বিপুলভাবে প্রশংসিত। তবে, এবারে এই গুণী ও সৃজনশীল সাংবাদিক আড়াল ছেড়ে পূর্ণ সম্পাদক হিসেবে নিজকে মেলে ধরেছেন এবং তাঁর উজ্জিবনী নেতৃত্ব ও সম্পাদনায় গতানুগতিকতার বাইরে ভিন্ন স্বাদ ও ভিন্ন মেজাজের আলোচিত দৈনিক দেশ রূপান্তর বিজয়ের মাসে পাঠকের হাতে তুলে দেয়ার এখন সর্বশেষ প্রস্তুতি চলছে।

তিনি আরো লিখেন, ‘‘আপাদমস্তক পেশাদার, সৎ ও নিষ্ঠাবান সাংবাদিক অমিত হাবিব সম্পাদিত এই নতুন দৈনিক দেশের পত্রিকা জগতে একটি গুণগত পরিবর্তন আনবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস। ইতিপূর্বে ভোরের কাগজ, যায় যায় দিন এবং কালের কন্ঠে তাঁর সাথে দীর্ঘ সময় কাজ করার সৌভাগ্য আমার হয়েছে। সেইসূত্রে তা্ঁর তুখোড় নেতৃত্বগুণ ও অসাধারণ সম্পাদনায় আমি যারপরনাই মুগ্ধ ও পরিপূর্ণ আস্থাশীল।

সেই আস্থা, মুগ্ধতা ও ভালোবাসার বন্ধন থেকে আমিও পরম আগ্রহভরে ‘দেশ রূপান্তর’ চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান হিসেবে সানন্দে যোগদান করলাম। এবং বিদায় নিলাম দৈনিক বাংলাদেশের খবর থেকে। বন্ধুরা, বরাবরই শুভ কাজে আমি আপনাদের পাশে পেয়েছি। এবারে, নতুন চ্যালেঞ্জ সফল হতেও আপনাদের দোয়া ও আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করি। আর, ধারাবাহিক ‘দেশ রূপান্তর’ পড়ার ও মূল্যবান মতামত প্রদানের অনুরোধ জানাই।

জয়নিউজ/অভি/ধৃতরাষ্ট্র

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...