ভেঙে দেওয়া হলো ২০ অবৈধ স্থাপনা

0

নগরের সাগরিকা মোড়ে অবৈধভাবে গড়ে উঠা প্রায় ২০টি কাঁচা-পাকা দোকান ভেঙে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এরমধ্যে হোটেল, সিমেন্টের দোকান, বাস কাউন্টার ও গাড়ির গ্যারেজসহ অন্যান্য দোকান রয়েছে।

সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মারুফা বেগম নেলী ও স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট (যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ) জাহানারা ফেরদৌস ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

বুধবার ( ১২ আগস্ট) সকালে এ অভিযানে প্রায় ১৫ গণ্ডা জায়গা উদ্ধার করা হয়।

একই অভিযানে সাগারিকা মোড় থেকে নয়াবাজার পর্যন্ত নালার উপর স্তুপ করে রাখা মালামাল সরিয়ে নালা দখলমুক্ত করে সাধারণ মানুষের জন্য উন্মুক্ত করা হয়।

উল্লেখ্য, গতকাল মঙ্গলবার সকালে চসিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন ওই এলাকা সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে এসব অবৈধ দখলদারদেরকে ২৪ ঘণ্টার সময় বেঁধে দেন। এরই কার্যকর পদক্ষেপ হিসেবে আজ এ অভিযান চালানো হয়।

এসময় চসিক ম্যাজিস্ট্রেট অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে এরকম অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে ঘোষণা দিয়ে বলেন, যেহেতু এ সড়কে উন্নয়নকাজ চলছে সেহেতু যেখানে প্রতিবন্ধকতা আসবে সেখানেই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হবে। অন্যদের জন্যও এটি একটি বার্তা।

অভিযানে উপস্থিত ছিলেন চসিক নির্বাহী প্রকৌশলী আবু সাদাত মো. তৈয়ব, মেট্টোপলিটন পুলিশ ও চসিকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

জয়নিউজ/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...