চসিকে সহায়ক পরিষদ নয়, ৪১ ওয়ার্ডের দায়িত্বে ৩ কর্মকর্তা

0

নির্বাচিত মেয়রের দায়িত্ব শেষে প্রশাসক নিয়োগ দেওয়া হলেও কাউন্সিলরদের পরিবর্তে ‘সহায়ক পরিষদ’ গঠিত হয়নি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে (চসিক)। এ অবস্থায় জনদুর্ভোগ লাঘবে চসিকের তিন কর্মকর্তাকে নগরের ৪১টি ওয়ার্ডের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা এ সংক্রান্ত অফিস আদেশ জারি করেন। এতে ওয়ার্ড সমূহের দৈনন্দিন কাজ, সড়ক আলোকায়ন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, জন্ম-মৃত্যু এবং ওয়ারিশান সনদপত্র প্রদান ও ভৌত্ত অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য তিন কর্মকর্তাকে ৪১ ওয়ার্ডের দায়িত্ব ভাগ করে দেওয়া হয়েছে।

নগরের ১নং ওয়ার্ড থেকে ১৪নং ওয়ার্ডের দায়িত্বে প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মফিদুল আলম, ১৫নং থেকে ২৮নং ওয়ার্ডের দায়িত্বে প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া ও ২৯ থেকে ৪১নং ওয়ার্ডের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে চসিক সচিব আবু শাহেদ চৌধুরীকে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চসিক প্রশাসকের একান্ত সচিব আবুল হাশেম বলেন, আমরা কদিন আগে সহায়ক পরিষদের বিষয়ে নির্দেশনা চেয়ে মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছিলাম। আজ (বৃহস্পতিবার) মন্ত্রণালয় থেকে মৌখিকভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে সহায়ক পরিষদ নয়, চসিকের কর্মকর্তাদের মাধ্যমেই কাজ চালিয়ে নিতে। সে কারণে সিইও মহোদয় তিন কর্মকর্তাকে ৪১ ওয়ার্ডের দায়িত্বভার বণ্টনের একটি অফিস আদেশ দিয়েছেন।

এর আগে ৫ অগাস্ট চসিকের পঞ্চম নির্বাচিত পরিষদের মেয়াদ শেষ হয়। এর একদিন আগে প্রশাসক পদে সুজনকে নিয়োগ দেওয়া হয়। ৬ অগাস্ট তিনি দায়িত্ব গ্রহণ করেন। মেয়রের সঙ্গে নির্বাচিত ৪১ জন ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং ১৪টি সংরক্ষিত নারী আসনের প্রার্থীদের মেয়াদও ৫ অগাস্ট শেষ হয়।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...