বাংলাদেশ স্তুতিতে কোহলি-শেবাগ

0

২০০৩ সালে ‍মুলতান টেস্টে ১ উইকেটের হার। ২০১২ এশিয়া কাপ ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে ১ রানের হার। ২০১৬ টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে ৩ বলে ২ রান করতে ব্যর্থ। ২০১৮ নিদহাস ট্রফির ফাইনালে শেষ বলে কার্তিকের ছক্কা। আর শুক্রবার (২৮ সেপ্টেম্বর) আরও একবার স্বপ্নভঙ্গ। আরও একবার শেষ বলের পরাজয়। আরও একবার এশিয়া কাপের ফাইনালে পৌঁছেও শিরোপা না ছুঁতে পারার আক্ষেপ। তারপরেও কঠিন লড়াইয়ের জন্য বাংলাদেশের প্রশংসা করে টুইট করেছেন ভারতের বর্তমান ও সাবেক ক্রিকেটাররা।

শেষ বল পর্যন্ত ম্যাচ টেনে নেওয়ায় বাংলাদেশের খেলায় মুগ্ধ করেছে শেবাগকে। ব্যক্তিগত টুইটার একাউন্টে তিনি লিখেন, ‘বাংলাদেশ, এত কাছে তবু কত দূরে। এশিয়া কাপ জেতার জন্য ভারতকে অভিনন্দন। গুরুত্বপূর্ণ কিছু খেলোয়াড় ছাড়াও এমন উজ্জীবিত লড়াই উপহার দেওয়ায় বাংলাদেশের প্রতি টুপি খোলা সম্মান জানাচ্ছি। এ জয়ের পরও ভারতের উন্নতির অনেক জায়গা আছে। আমি আশাবাদী ওরা আরও ভালো করবে।’

অন্যদিকে, ভিভিএস লক্ষ্মণও বাংলাদেশের এই লড়াই, শরীরী ভাষায় মুগ্ধ। ভারতের সপ্তম এশিয়া কাপ জয়ের বন্দনার চেয়ে টুইটারে বাংলাদেশ স্তুতিতেই সময় বেশি দিয়েছেন সাবেক ভারতীয় এ ব্যাটসম্যান। তাই বাংলাদেশের উদ্দেশে টুপি খোলা সম্মান জানিয়ে লক্ষ্মণ লিখেন, ‘এশিয়া কাপ জেতায় ভারতকে অভিনন্দন। সাকিব ও তামিমকে ছাড়াই খেলেছে বাংলাদেশ। তবু দৃঢ়চেতা মনোভাব দেখিয়ে দুর্দান্ত লড়াই করেছে, হাল ছাড়েনি এবং নিজেদের শেষ বিন্দু দিয়ে লড়েছে—এ কারণে তাদের প্রতি বাংলাদেশের প্রতি টুপি খোলা সম্মান।’

এছাড়াও বাংলাদেশের খেলায় মুগ্ধ হয়ে টাইগারদের অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করেছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। টুইটে তিনি লিখেন, ‘এশিয়া কাপে সপ্তম শিরোপা আমাদের। গতরাতে কঠিন ম্যাচ জেতার জন্য দুর্দান্ত কাজ করেছে ছেলেরা। বাংলাদেশকেও অভিনন্দন কঠিন লড়াইয়ের জন্য।’

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে শেষ বল পর্যন্ত খেলে ৩ উইকেটে হার মানতে হয় বাংলাদেশকে। শুধু এই ফাইনালই নয়, এশিয়া কাপের ১৪তম আসরের শুরুর ম্যাচ থেকেই নিজেদের দারুণ ছন্দে রাখা বাংলাদেশ হেরেও ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ও বর্তমান ক্রিকেটারদের প্রশংসা পেল।

 

জয়নিউজ/শহীদ

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...