বাঁশখালীর সাংসদকে ঢাকা মহানগর উত্তর এলাকায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা

0

বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রথম প্রতিবাদকারী বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ মৌলভী সৈয়দের বড় ভাই বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আলী আশরাফের মৃত্যুতে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা না দেওয়া, সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী কর্তৃক মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের অবমাননা এবং সাংবাদিক ফারুক আবদুল্লাহ’র বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দায়েরের ঘটনা ঘটেছে।

এসব ন্যাক্কারজনক ও জঘন্য ঘটনায় সম্পৃক্ততার কারণে চট্টগ্রাম ১৬ আসনের সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী এমপিকে ঢাকা মহানগর উত্তর এলাকায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে ‘মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ, ঢাকা মহানগর উত্তর’। একইসঙ্গে এই সংগঠনের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়।

এসব কথা উল্লেখ করে মঙ্গলবার (১৮ এপ্রিল) গণমাধ্যমে এক বিবৃতি পাঠানো হয়েছে। শিগগির জাতীয় সংসদের স্পিকারের কাছে এই সংসদ সদস্যের অপসারণের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি আহমেদ হাসনাইন।

বিবৃতিতে বলা হয়, বাঁশখালীতে আয়োজিত মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন ও শহীদ পরিবারের প্রতিবাদ সমাবেশে নগ্ন হামলার ঘটনা ঘটেছে। গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এসব হামলা সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীর নির্দেশে হয়েছে। এসব ঘটনার সংবাদ প্রকাশ করায় এমপির মৌখিক নির্দেশে সাংবাদিক ফারুক আবদুল্লাহ’র বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সবশেষ গত সোমবার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রথম প্রতিবাদকারী, চট্টগ্রাম গেরিলা বাহিনীর কমান্ডার এবং চট্টগ্রাম যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শহীদ মৌলভী সৈয়দ আহমদের পরিবার নিরাপত্তাহীনতার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুতি জানিয়েছেন। এর আগে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে বাঁশখালী থানায় একটি জিডিও করা হয়েছে।

এসব ন্যাক্কারজনক ও জঘন্য ঘটনায় সম্পৃক্ততার কারণে চট্টগ্রাম-১৬ আসনের সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী এমপিকে ঢাকা মহানগর উত্তর এলাকায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে ‘মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ, ঢাকা মহানগর উত্তর’।

বিবৃতিতে তারা দাবি করেন, সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীকে শহীদ পরিবার ও মুক্তিযোদ্ধাদের নিকট নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে। সংবাদ কর্মীর নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...