লালদীঘি সংস্কার করে নান্দনিক রূপে গড়ে তোলা হবে: সুজন

0

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন বলেছেন, চসিকের কাজ হচ্ছে নগরবাসীর সেবা দেওয়া। অথচ এখন প্রত্যেক জায়গায় নগরবাসী সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এর মূল কারণ অব্যবস্থাপনা। এখন সময় এসেছে এসব ধ্যান ধারণা থেকে বেরিয়ে আসার।

রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ৫টায় নগরের লালদীঘি পাড় পরিদর্শনকালে স্থানীয়দের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন তিনি।

সুজন বলেন, এক সময় বিকেল হলেই লালদীঘিতে মানুষের ঢল নামতো। লালদীঘির সৌন্দর্য্যের পাশাপাশি বিপুল সংখ্যক নরনারী প্রতিদিন হাটাহাটি করতে আসতো এখানে। সময়ের ব্যবধানে লালদীঘিটি এখন জনসাধারণের চলাচলের অযোগ্য হয়ে উঠেছে। চসিকের আটজন মালী থাকা সত্ত্বেও অপরিস্কার এবং অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ দেখে অসন্তোষ প্রকাশ করেন প্রশাসক সুজন।

তিনি কাল থেকেই লালদীঘির রক্ষণাবেক্ষণে নিয়োজিতদের কর্মবন্টনের জন্য সংশ্লিষ্টদের নিদের্শনা দেন। এছাগা দ্রুত সময়ের মধ্যে পরিষ্কার–পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম সম্পন্ন করার নির্দেশ দেন প্রশাসক।

এছাড়া লালদীঘিকে সংস্কার করে নান্দনিক রূপে গড়ে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি। পরে প্রশাসক হযরত আমানত শাহ (র.) মাজারস্থ বদর পুকুর পরিদর্শন করেন।

এ সময় স্থপতি আশিক ইমরান, প্রশাসকের একান্ত সচিব মো. আবুল হাশেম, ওমর আবদুল্লাহ, মহিউদ্দিন শাহ ও জানে আলমসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...