প্রতিমার গায়ে শিল্পীর তুলির আঁচড়

0

দেবী দুর্গার আগমনের উৎসবে রং লেগেছে প্রতিটি হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঘরে ঘরে। শিল্পীর তুলির আঁচড়ে সেজে উঠছে প্রতিমা। কক্সবাজার জেলার ৩০১টি পূজা মন্ডপে অনুষ্ঠিত হবে শারদীয় দুর্গোৎসব। ভীষণ ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা কারিগররা। নানা আকার আর ঢংয়ের দুর্গা, লক্ষ্মী, সরস্বতী, কার্তিক, গণেশ আর মহিষাসুর-সঙ্গে দেবীর বাহন সিংহকে সারি সারি ভাবে সাজিয়ে রং করা হচ্ছে ।

পূজা মন্ডপগুলোর সার্বিক নিরাপত্তায় এবং সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পূজা উদযাপন করার লক্ষ্যে জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হচ্ছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

কক্সবাজার শহরের সরস্বতী বাড়ি মন্দিরে চলছে প্রতিমা গড়ার কাজ। আসছে মধ্য অক্টোবরেই দেবীর বোধন। তাই সরস্বতী বাড়ির চারিদিকে এখন ব্যস্ততার ছাপ। প্রতিমা কারিগর নেপাল ভট্টাচার্য্যের তত্ত্বাবধানে চলছে প্রতিমা তৈরি ।

নেপাল ভট্টার্চায্য জানান, তার বাবা শৈল্পিক হাতে প্রতিমা তৈরি করতেন। ছোটবেলা থেকেই প্রতিমা তৈরির কাজ দেখতে দেখতে তার বেড়ে ওঠা। মাত্র ১৫ বছর বয়সেই বাবার কাছে থেকে কাদা-মাটি আর কাঠ-খড় দিয়ে প্রতিমা গড়ার শিক্ষা নেন তিনি।

তিন মাস আগে থেকে অর্ডার অনুযায়ী প্রতিমা তৈরির কাজ শুরু করেছেন। এখনও অনেকেই আসছেন। তবে এখন আর অর্ডার নেয়া হচ্ছে না। যে প্রতিমাগুলোর কাজ শুরু করেছেন তা প্রায় শেষ। এবার রঙের কাজ শুরু হবে। তার তৈরি একেকটি প্রতিমা ১৫ থেকে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হবে।

 

জয়নিউজ/আল্পনা

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...