সবজিতে স্বস্তি, ভোজ্যতেল-চিনির দামে অস্বস্তি

0

অপরিবর্তিত রয়েছে সবজি, মাছ ও মাংসের দাম। কিন্তু বাজার ও মুদি দোকানে বেড়েছে চিনি ও ভোজ্যতেলের দাম। বিক্রেতারা বলছে, তেলের উৎপাদন কমে এবং আন্তর্জাতিক বাজারে ভোজ্যতেলের দাম বাড়ায় দাম বেড়েছে।

শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে নগরের রিয়াউদ্দিন বাজার, কাজীর দেউরি ও চকবাজার ঘুরে এ তথ্য পাওয়া যায়। বাজারে প্রতি কেজি মুলা ১৫ টাকায়, গাজর ২৫ থেকে ৩০ টাকায়, শিম ২০ টাকায়, বেগুন ২০ টাকায়, করলা ৩০ টাকায়, ঢেঁড়স ৩০ থেকে ৪০ টাকায়, টমেটো ৩০ টাকায়, বরবটি ৪০, বাঁধাকপি ২০ টাকা, ফুলকপি ২৫ থেকে ৩০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ২৫ টাকার, আলু ২০ টাকায়, কাঁচা মরিচ ৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

নতুন পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা কেজি দরে। এছাড়াও আদা প্রতি কেজি ৮০ টাকা, রসুনের কেজি ১২০ টাকা। প্রতি কেজি চিনিতে পাঁচ টাকা দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকায়। প্রতি কেজি আটাশ চাল ৫০ থেকে ৫৫ টাকায়, পায়জাম ৪৮ থেকে ৫০ টাকায়, মিনিকেট ৬০ থেকে ৬৫ টাকায়, পোলাওয়ের চাল ৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। খোলা ভোজ্যতেল লিটার বিক্রি হচ্ছে ১২৫ থেকে ১৩০ টাকায়।

প্রতি কেজি সোনালী মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৮০ টাকা, ব্রয়লার ১২০ থেকে ১৩০ টাকায়, লেয়ার ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বাজারে প্রতি কেজি খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭৫০ থেকে ৮০০ টাকায় ও গরুর মাংস ৫৫০ টাকায়।

এছাড়াও বাজারে প্রতি কেজি রুই মাছ ২৫০ টাকায়, কাতল ১৭০ থেকে ২২০ টাকায়, তেলাপিয়া ১৫০ টাকায়, রূপচাঁদা মাছ ৬০০ টাকায়, চিংড়ি ৫০০ থেকে ৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

জয়নিউজ/হিমেল/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...