আট মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন শনাক্ত

0

করোনা শনাক্ত নেমে এসেছে ছয়শ’র ঘরে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৫৭৮ জন; যা গত আট মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন। গত ১ মে শনাক্ত হয়েছিলেন ৫৭১ জন। এর আগে ২৮ এপ্রিলে শনাক্ত হয়েছিলেন ৫৪৯ জন।

নতুন শনাক্ত ৫৭৮ জনকে নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত সরকারি হিসাবে করোনা শনাক্ত হলেন পাঁচ লাখ ২৭ হাজার ৬৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২১ জন। তাদের নিয়ে এখন পর্যন্ত মারা গেলেন সাত হাজার ৮৮৩ জন। একইসময়ে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৬৩৩ জন, এ নিয়ে এখন পর্যন্ত সুস্থ হলেন চার লাখ ৭১ হাজার ৭৫৬ জন।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার চার দশমিক ৭৩ শতাংশ, এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৩০ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৯ দশমিক ৫১ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুহার এক দশমিক ৪৯ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ২১২টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ২১৫টি। এখন পর্যন্ত দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৪ লাখ ৪৪ হাজার সাতটি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ২৭ লাখ আট হাজার ৮৭৫টি এবং বেসরকারিপর্যায়ে পরীক্ষা করা হয়েছে সাত লাখ ৩৫ হাজার ১৩২টি।

দেশে বর্তমানে ১৯৯টি পরীক্ষাগারে নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। এর মধ্যে সরকারি-বেরসকারি মিলিয়ে ১১৫টি আরটি-পিসিআর, ২৮টি জিন-এক্সপার্ট ও ৫৬টি পরীক্ষাগারে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের মাধ্যমে নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে।

২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২১ জনের মধ্যে পুরুষ ১৩ জন এবং নারী আট জন। এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে পুরুষ মারা গেছেন পাঁচ হাজার ৯৭৬ জন এবং নারী এক হাজার ৯০৭ জন। শতকরা হিসাবে পুরুষ ৭৫ দশমিক ৮০ শতাংশ এবং নারী ২৪ দশমিক ১৯ শতাংশ।

বয়স বিবেচনায় ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব রয়েছেন ১২ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আছেন চার জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে তিন জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন এবং ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে আছেন একজন।

তারা সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের রয়েছেন ১৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ছয় জন এবং রংপুর বিভাগের রয়েছেন দুই জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হওয়া ৬৩৩ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ৪৪৫ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৯১ জন, রংপুর ও খুলনা বিভাগের ১১ জন করে, বরিশাল বিভাগের ১৪ জন, রাজশাহী বিভাগের ৩৮ জন, সিলেট বিভাগের ২১ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের আছেন দুই জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন ৩৪০ জন, ছাড়া পেয়েছেন ৪৩৩ জন। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন ছয় লাখ ১২ হাজার ১৮২ জন, ছাড়া পেয়েছেন পাঁচ লাখ ৭৫ হাজার ২৮০ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৩৬ লাখ ৯০২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৮৬ জন, ছাড়া পেয়েছেন ৮২ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৯৮ হাজার ৭৬ জন, ছাড়া পেয়েছেন ৮৬ হাজার ৮৮৪ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১১ হাজার ১৯২ জন।

জয়নিউজ/এসআই

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...