হঠাৎ অন্ধকারে পুরো মিরসরাই

0

মিরসরাইয়ে বারইয়ারহাট গ্রিড উপ-কেন্দ্রে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটে পাওয়ার ট্রান্সফরমার বিস্ফোরণ হয়েছে। এতে করে পুরো উপজেলা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

রোববার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টায় বারইয়ারহাট গ্রিড উপ-কেন্দ্রে একটি বিকট শব্দ হয়ে পরীক্ষামূলকভাবে চালু হওয়া নতুন প্লান্টের পাওয়ার ট্রান্সফরমারে দাউ দাউ করে আগুন জ্বলা শুরু হয়।

পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-৩ বারইয়ারহাট জোনাল অফিসের লাইনম্যানের সদস্যরা ও মিরসরাই ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এক ঘণ্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

জানা গেছে, বারইয়ারহাট গ্রিড উপ-কেন্দ্রে রোববার দুপুরে পরীক্ষামূলকভাবে ২০০ কেভির পাওয়ার ট্রান্সফরমার চালু করা হয়। চালুর কিছুক্ষণ পর সন্ধ্যা ৭টার দিকে হঠাৎ একটি বিকট শব্দ হয়ে ট্রান্সফরমারটিতে আগুন ধরে যায়। এতে সাথে সাথে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে পুরো মিরসরাই। পরবর্তীতে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-৩ এর বারইয়ারহাট জোনাল অফিসের লাইনম্যানের সদস্যরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন। আগুনের মাত্রা বেড়ে গেলে মিরসরাই ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মীরাও তাতে যোগ দেন। প্রায় ১ ঘণ্টা চেষ্টার পর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-৩ এর সভাপতি জাবেদ ইকবাল বলেন, বারইয়ারহাট গ্রিড উপ-কেন্দ্রে আগুন লাগার খবর শুনে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। বারইয়ারহাট জোনাল অফিসের লাইনম্যানরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ট্রান্সফরমারটির আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য বালু নিক্ষেপ করে ও অন্য ট্রান্সফরমারের তারের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে। পরবর্তীতে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আশা করি, রাতে পুনরায় পুরো উপজেলায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া সম্ভব হবে।

মিরসরাই ফায়ার সার্ভিস স্টেশন কর্মকর্তা ইমাম হোসেন পাটোয়ারি বলেন, বারইয়ারহাট গ্রিড উপ-কেন্দ্রে আগুন লাগার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি।

চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-৩ এর মিরসরাই জোনাল অফিসের ডিজিএম সাইফুল আহমেদ বলেন, বিস্ফোরণের কারণে পুরো উপজলো বিদ্যুাৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার জন্য আমরা কাজ করছি। মিরসরাইয়ে বারইয়ারহাট গ্রিড উপ-কেন্দ্রে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটে পাওয়ার ট্রান্সফরমার বিস্ফোরণ হয়েছে। এতে করে পুরো উপজেলা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...