আমেরিকার সম্মতিতে ভারত কিনল এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র

0

রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ ব্যবস্থা কেনার চুক্তিতে সই করেছে ভারত। রোববার (৬ অক্টোবর) দিল্লীতে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও নরেন্দ্র মোদীর বৈঠকে এই চুক্তি সই হয়। ৫৪৩ কোটি ডলার বা প্রায় ৩৯ হাজার কোটি টাকার এই চুক্তি ভারতের ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ ব্যবস্থায় এ যাবৎকালের সর্বোচ্চ ব্যয়।

সরকারি প্রোটোকল অনেক পরিবতির্ত হয় পুতিনের ভারত সফরে। রাষ্ট্রপতি ভবনে অনুষ্ঠান বা রাজঘাটে মহাত্মা গান্ধীর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে যাননি রুশ প্রেসিডেন্ট। তার পরিবর্তে মোদীর সঙ্গে নৈশভোজে নির্ধারিত ৩০ মিনিটের বদলে তিন ঘণ্টা একান্তে আলোচনা করেন পুতিন।

রাশিয়া থেকে অস্ত্র কিনলে মার্কিন আইনে নিষেধাজ্ঞায় পড়তে হবে জেনেও আমেরিকাকে না রাগিয়ে পাকিস্তানের মোকাবেলার নামে রাশিয়ার সমরাস্ত্র কিনতে বদ্ধপরিকর ছিল ভারত। চুক্তির পরে দু’দেশের রাষ্ট্রপ্রধান এ নিয়ে মুখ খোলেননি।

যৌথ বিবৃতিতেও ৬৮টি অনুচ্ছেদের মধ্যে এস-৪০০ চুক্তির উল্লেখ রয়েছে ৪৫তম অনুচ্ছেদে। চুক্তিতে পূর্ণ সম্মতি রয়েছে এমন সুরেই আমেরিকা বলেছে, রাশিয়া থেকে অস্ত্র কিনলে নিষেধাজ্ঞার ওই আইন আমেরিকার সহযোগী রাষ্ট্রের ক্ষতি করার জন্য নয়।

ক’দিন আগেই বায়ুসেনা প্রধান বি এস ধানোয়া এস-৪০০-কে ‘গেমচেঞ্জার’ আখ্যা দিয়ে বলেছিলেন, এই ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ ব্যবস্থা ভারতের হাতে এলে উপমহাদেশের খেলাটাই ঘুরে যাবে। রুশ এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ ব্যবস্থায় শত্রু দেশের যুদ্ধবিমান, ক্ষেপণাস্ত্র বা ড্রোন চিহ্নিত করে তাকে ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়ে গুঁড়িয়ে দেওয়া যায়। এর মাধ্যমে পাকিস্তানের সব বায়ুসেনা ঘাঁটিই ভারতের নাগালের মধ্যে চলে আসবে।

গত সপ্তাহে একই কারণে চীনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন ট্রাম্প। তা এড়িয়েই পুতিনের রাশিয়ার সঙ্গে ভারতের এই চুক্তিকে কূটনৈতিক ভারসাম্য রক্ষা হিসেবে ব্যাখ্যা করছেন অনেকেই।

ভারতীয় নভোচারীদের মহাকাশে যাওয়ার প্রশিক্ষণ নিয়েও রাশিয়ার সাথে চুক্তি করেছে ভারত। রুশ মহাকাশযানে এক বা একাধিক ভারতীয় নভোচারীকে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন (আইএসএস)-এর ‘রাশিয়ান অরবিট সেগমেন্ট’-এ যেতে দিতে রাজি হয়েছে রাশিয়া।

জয়নিউজ

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...