জিয়ার খেতাব পাওয়ারই কথা ছিল না: ইঞ্জি. মোশাররফ

0

জাতীয় সংসদ ভবন কমপ্লেক্সে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবর প্রতিস্থাপনকে ‘ইডিয়টিক’ সিদ্ধান্ত মন্তব্য করে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, সেখান থেকে জিয়াউর রহমানের কবর সরানো হবে বলেই দৃঢ় বিশ্বাস করি।

দেশীয় একটি গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি বিশ্বাস করি, চন্দ্রিমা উদ্যান থেকে জিয়াউর রহমানের কবর সরবেই এবং একদিন না একদিন এটা সরানো হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কবরস্থান এখান থেকে সরিয়ে লুই আই কানের নকশা বাস্তবায়ন করবেন বলেও আশা করি।

জিয়াউর রহমানের রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিল প্রসঙ্গে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, তখন তার (জিয়া) খেতাব পাওয়ারই কথা ছিল না। যাচাই-বাছাই না করে খেতাব দেওয়ার কারণে এমনটি হয়েছে। যদি ভালো করে যাচাই করে দেয়া হতো, তাহলে জিয়াসহ আরো অনেকেই এটি পেতেন না।

তিনি বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য যে পদক দেয়া হয়েছে তার প্রক্রিয়াটি যথাযথ ছিল না। এ দায় জেনারেল ওসমানীর। বঙ্গবন্ধু তাকে অন্ধের মতো বিশ্বাস করতেন বিধায় দেশে ফিরেই সব দায়িত্ব তার হাতে দেন। অথচ এগুলো দেওয়ার আগে অন্তত ছয় মাস যাচাই করা প্রয়োজন ছিল।

কিন্তু তা না করে উনি ১১ জন সেক্টর কমান্ডারকে বীর উত্তম খেতাব দিয়ে দিলেন। এবার ওই কমান্ডাররা যুদ্ধ করুক বা না করুক। আমি একটি সেক্টরের সাব-সেক্টর কমান্ডার ছিলাম এবং দেখেছি কার বন্দুক থেকে কয়টা গুলি বেরিয়েছে। কে বর্ডার ক্রস করে যুদ্ধ করেছে আর কে করেনি।— বলেন তিনি।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস্য বলেন, তিনি জিয়াউর রহমানকে ভালো করেই চেনেন এবং তারা একসঙ্গে একই বিছানায় সপ্তাহখানেক ছিলেন।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...