লাইব্রেরিতে ৫০ শয্যার চসিক আইসোলেশন সেন্টার

0

নগরের লালদীঘির দক্ষিণ পাড়ে যাত্রা শুরু করেছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) আইসোলেশন সেন্টার। দু-এক দিনের মধ্যেই এ সেন্টারে রোগী ভর্তি শুরু করা হবে।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) দুপুরে চসিকের লাইব্রেরি ভবনের দুইটি ফ্লোর নিয়ে গড়ে তোলা ৫০ শয্যার সেন্টারটির উদ্বোধন করেন মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

এ সময় চসিকের প্যানেল মেয়র মো. গিয়াস উদ্দিন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মো. মোজাম্মেল হক, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী, আইসোলেশন সেন্টারের সমন্বয়কারী চসিকের আরবান হেলথ প্রকল্প পিএ-১ এর প্রকল্প ব্যবস্থাপক ডা. মো. মুজিবুল আলম চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ডা. মো. মুজিবুল আলম চৌধুরী জানান, ৫০ শয্যার মধ্যে দোতলায় ৩৫ শয্যা থাকছে পুরুষদের জন্য, তৃতীয়তলায় ১৫ শয্যা নারীদের। ইতোমধ্যে চসিকের পদায়ন করা ১১ জন চিকিৎসক যোগদান করেছেন। ১০ জন চিকিৎসক সবসময় থাকবেন। এ ছাড়া ১২ জন প্যারামেডিকস, ৩ জন ফার্মাসিস্ট, ৮ জন ওয়ার্ডবয়, ২ জন স্টোর কিপার, ৩ জন ওয়ার্ড মাস্টার রোস্টার অনুযায়ী ২৪ ঘণ্টা দায়িত্ব পালন করবেন।

তিনি জানান, পরিস্থিতি বুঝে এ আইসোলেশন সেন্টার সম্প্রসারণের পরিকল্পনা রয়েছে। তখন শয্যা ও জনবল বাড়ানো হবে। প্রাথমিকভাবে চসিকের আইসোলেশন সেন্টারে চিকিৎসা নিতে আসা করোনা রোগীদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা, ওষুধপত্র-অক্সিজেন সাপোর্ট, খাবারসহ সব ধরনের প্রয়োজনীয় সুরক্ষা সেবা নিশ্চিত করা হবে। রোগী পরিবহন ও স্থানান্তরের জন্য থাকবে অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস। চসিকের লোকজনই সেন্টারের রোগীদের করোনাসহ অন্যান্য টেস্টের নমুনা সংগ্রহ করে নির্দিষ্ট পরীক্ষাগারে পৌঁছে দেবেন। জটিল রোগীদের দ্রুত সরকারি হাসপাতালে রেফার করা হবে।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...