করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ১০২ জনের মৃত্যু

0

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১০২ জন মারা গেছেন। এখন পর্যন্ত করোনায় এটিই সর্বোচ্চ মৃতের সংখ্যা। এর আগে গতকাল ১০১ এবং তার আগের দিনও ১০১ জন মারা যান। অর্থাৎ টানা তিন দিন ধরে একদিনে মৃত্যু শতাধিক। আজকের ১০২ জন নিয়ে এখন পর্যন্ত মারা গেলেন ১০ হাজার ৩৮৫ জন।

রোববার (১৮ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাবিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন তিন হাজার ৬৯৮ জন এবং এখন পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন সাত লাখ ১৮ হাজার ৯৫০ জন। এ সময়ে সুস্থ হয়েছেন ছয় হাজার ১২১ জন, এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ছয় লাখ ১৪ হাজার ৯৩৬ জন।

এতে আরও বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ১৮ হাজার ৯২৮টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৯ হাজার ৪০৪টি। দেশে এখন পর্যন্ত করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৫১ লাখ ৭০ হাজার ৬৭টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৮ লাখ ৪৬ হাজার ৪১০টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ লাখ ২৩ হাজার ৬৫৭টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় রোগী শনাক্তের হার ১৯ দশমিক শূন্য ছয় শতাংশ, আর এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৯১ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৫ দশমিক ৫৩ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুহার এক দশমিক ৪৪ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ১০২ জনের মধ্যে পুরুষ ৫৯ জন এবং নারী মারা গেছেন ৪৩ জন। দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত পুরুষ মারা গেছেন সাত হাজার ৬৯৪ জন এবং নারী দুই হাজার ৬৯১ জন।

তাদের মধ্যে বয়স বিশ্লেষণে ষাটোর্ধ্ব রয়েছেন ৬৩ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আছেন ২৩ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের আছেন ১৪ জন এবং ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে আছেন দুই জন।

মারা যাওয়া ১০২ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ৬৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ২২ জন, রাজশাহী বিভাগের তিন জন, খুলনা বিভাগের একজন এবং বরিশাল ও ময়মনসিংহ বিভাগের আছেন চার জন করে। ১০২ জনের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ৯৭ জন, আর বাসায় মারা গেছেন পাঁচ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হওয়া ছয় হাজার ১২১ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন তিন হাজার ৯০৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের এক হাজার ৮৯৮ জন, রংপুর বিভাগের ২৪ জন, খুলনা বিভাগের ৮৯ জন, বরিশাল বিভাগের ৩০ জন, রাজশাহী বিভাগের ৬৬ জন, সিলেট বিভাগের ৭৭ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের আছেন ৩১ জন।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...