ইসরায়েলি বিমান হামলায় গাজায় শিশুসহ নিহত ২০

0

গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত ২০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে ৯টি শিশুও রয়েছে। এর আগে উপকূলীয় অঞ্চলটি থেকে ইসরায়েলে রকেট হামলা চালিয়েছে হামাস। ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী বলেছে, তারা সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলো, রকেট লাঞ্চার ও সামরিক ফাঁড়িতে বিমান হামলা চালিয়েছে। খবর রয়টার্স ও আলজাজিরার।

ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি বাহিনী আরও মারমুখি হচ্ছে, অধিকার আদায়ে মাঠে নামলেও একবিন্দুও ছাড় দিচ্ছে না দখলদাররা। কোণঠাসা ফিলিস্তিনিদের হয়ে হামাসের রকেট হামলার জবাবের পর ইসরায়েলি বাহিনীর বিমান হামলায় নিহত হয়েছেন ২০ ফিলিস্তিনি। আহত হয়েছেন আরও অনেকে। রক্ত ভিজেছে রাজপথ, আর্তনাদে ভারী হয়েছে আকাশ।

পবিত্র আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণ থেকে এভাবেই গুলির মুখে পালিয়ে বের হচ্ছেন নিরস্ত্র ফিলিস্তিনিরা। নির্বিচারে গুলি চালানো হয়েছে শান্তিপূর্ণ ফিলিস্তিনিদের সরিয়ে দিতে। যেখানে নামাজ ও ইবাদতের স্থান সেখানকার পবিত্রতার বিন্দুমাত্র তোয়াক্কা করেনি ইহুদিরা।

ফিলিস্তিনের জেরুজালেমসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় এভাবেই রাতভর চলে দফায় দফায় আক্রামণ। যে কোনো মূল্যে নিরস্ত্র প্রতিবাদকারীদের হটিয়ে দেওয়াই তাদের লক্ষ্য। গুলি চালানোর পাশাপাশি স্টেন গ্রেনেড হামলা করা হয়েছে।

ইসরায়েলের এমন নির্মম হামলার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্র যথারীতি দুষছে ফিলিস্তিনিদের সংগঠন হামাসকে। সংগঠনটি যা করেছে তা গ্রহযোগ্য নয় বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস।

ইসরায়েলি বাহিনী শান্তিপূর্ণ মুসল্লিদের ওপর বিনা উসকানিতে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। মূলত বসতভিটা থেকে উচ্ছেদ ও পবিত্র আল আকসায় নামাজ আদায় করতে বাধা দেওয়াসহ দমনপীড়নের প্রতিবাদে কর্মসূচি পালন করেন তারা। পাল্টা বিক্ষোভ করেছেন ইসরায়েলের সাধারণ মানুষও।

ফিলিস্তিনিদের নিজেদের ভূমি থেকে উচ্ছেদের প্রতিবাদে বিক্ষোভ হয়েছে জর্ডান তুরস্কসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে।

জয়নিউজ/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...