‘দুর্নীতি ঢাকতেই সাংবাদিক রোজিনাকে নির্যাতন ও মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে’

0

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের ওপর যারা নির্যাতন ও হেনস্থায় জড়িতদের বিরূদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার দাবি জানিয়েছেন চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিইউজে) সভাপতি মোহাম্মদ আলী। পাশাপাশি অবিলম্বে রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারেরও দাবি জানান তিনি।

সোমবার (১৮ মে) সকালে দৈনিক প্রথম আলোর জ্যেষ্ট সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের ওপর হেনস্থা ও আটকের প্রতিবাদে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে) আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ দাবি জানান।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বর্তমানে দেশকে যেভাবে উন্নয়নের মাধ্যমে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। এই উন্নয়নকাজকে বাঁধাগ্রস্ত করতে প্রশাসনে ঘাপটি মেরে থাকা কিছু কুচক্রী মহল ষড়যন্ত্র করছে। তাদের দুর্নীতি ও অনৈতিক কর্মকাণ্ড ঢাকতেই আমাদের সহকর্মী রোজিনা ইসলামকে নির্যাতন করেছে। সচিবালয়ে যারা আমাদের সহকর্মী রোজিনা ইসলামের ওপর নির্যাতন করেছে, তাদের চিহ্নিত করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি। পাশাপাশি রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে আনা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের যেই গোপন নথি চুরির মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে, তা অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি। অন্যথায় চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন সারাদেশের সাংবাদিকদের নিয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবে।

সমাবেশে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব সভাপতি আলহাজ্ব আলী আব্বাস বলেন, সচিবালয়ে কিভাবে জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে আটকে রেখে নির্যাতন করা হয়েছে? এটা কোনমতেই কাম্য নয়। যারা আমাদের সহকর্মীকে নির্যাতন করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতের জন্য আমাদের অভিভাবক বঙ্গবন্ধু কন্যা ও জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি। পাশাপাশি সাংবাদিকদের মর্যাদা অক্ষুন্ন রাখতে সকল সাংবাদিককে ঐক্যবদ্ধ থাকারও আহ্বান জানান তিনি।

সিইউজে’র সাধারণ সম্পাদক ম. শামসুল ইসলাম বলেন, পেশাদার সাংবাদিক হিসেবে আমাদের সহকর্মী রোজিনা ইসলাম সচিবালয়ে গিয়েছিলেন। সেখানে পরিকল্পিতভাবে তাকে সচিবালয়ের একটি কক্ষে আটকে রেখে চরমভাবে হেনস্থা করা হয়েছে। এমনকি রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নথি চুরির মিথ্যা মামলা সাজানো হয়েছে। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, কথিত ওই নথিতে এমনকি কি গোপন তথ্য ছিল যা প্রকাশ হলে হয়তো অনেক দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তার মুখোশ উন্মোচন হতো?

তিনি বলেন, করোনা অতিমারির এই কঠিন সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেখানে বিভিন্ন সহায়তা নিয়ে সাংবাদিকদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন, সেখানে একজন সাংবাদিকের সঙ্গে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কতিপয় কর্মকর্তার এহেন ধৃষ্টতাপূর্ণ আচরণ কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায়না।

চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিইউজে) সভাপতি মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ম. শামসুল ইসলামের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন বিএফইউজে সাবেক সহ-সভাপতি শহীদ উল আলম, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, সিইউজের সহ-সভাপতি অনিন্দ্য টিটো, প্রথম আলোর বার্তা সম্পাদক কবি ওমর কায়সার, চট্টগ্রাম টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি নাসির উদ্দিন তোতা, সিইউজের নির্বাহী সদস্য মুহাম্মদ মহরম হোসাইন, চট্টগ্রাম টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক দীপঙ্কর বাবু, সিইউজে’র সদস্য প্রীতম দাশ ও সুবল বড়ুয়া। সমাবেশে সিইউজের সদস্যসহ চট্টগ্রামে কর্মরত কয়েকশ গণমাধ্যমকর্মী অংশ নেন।

জয়নিউজ/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...