ড্রেনে নিখোঁজ ছাত্রীর মরদেহ ৫ ঘণ্টা পর উদ্ধার

0

নগরের আগ্রাবাদে ড্রেনে পড়ে নিখোঁজ হওয়া আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী সাদিয়ার মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস।

গতকাল সোমবার রাত ৩টা ১০ মিনিটে নিখোঁজের স্থান থেকে ৩০ গজ দূর থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এরআগে রাত সোয়া দশটার দিকে আগ্রাবাদ মাজার গেইট এলাকার ড্রেনে পড়ে যান সাদিয়া।

জানা যায়, রাতে মামার সঙ্গে আগ্রাবাদ শাহজালাল চশমা মার্কেটে চশমা কিনতে এসেছিলেন সাদিয়া। এসময় ফুটপাত ধরে হাটার সময় তিনি পা পিছলে খোলা ড্রেনে পড়ে যান। তাকে উদ্ধারের জন্য সঙ্গে থাকা মামা ড্রেনে ঝাপ দিলেও তিনি ব্যর্থ হন। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধার কাজ শুরু করে।

আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ম্যানেজার মো. কফিল উদ্দিন জানান, খবর পাওয়ার পর ফায়ার সার্ভিসের একটি ডুবুরি দল, একটি স্পেশাল দলসহ মোট চারটি টিম উদ্ধারে কাজ করে। টানা পাঁচ ঘণ্টা উদ্ধার কাজ চালানোর পর তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত সেহেরীন মাহবুব সাদিয়া (১৯) আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি হালিশহর থানার বড়পোল এলাকায় শুক্কুর মেম্বারের বাড়ির প্রবাসী মোহাম্মদ আলীর চার ভাই বোনের মধ্যে সবার বড়।

এরআগে গতমাসে মুরাদপুরে ড্রেনে পড়ে এক সবজি বিক্রেতা সালেহ আহমেদ নিখোঁজ হয়েছিলেন। গত একমাসের বেশি সময়েও তার খোঁজ মিলেনি৷ এর আগে ২০২০ সালে হালিশহরে মহেশখালের পড়ে দুই কিশোরীর মৃত্যু হয়েছিল।

জয়নিউজ/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...