সাত মাস পর একদিনে মৃত্যু ৭

0

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও সাত জন মারা গেছেন। এর আগে গত ১১ মার্চ ছয় জনের মৃত্যু হয়েছিল। সে হিসাবে গত সাত মাস পর করোনায় একদিনে সর্বনিম্ন মৃত্যু দেখলো দেশ। সেইসঙ্গে মৃত্যুও নেমে এলো ১০ এর নিচে।

শুক্রবার (৮ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত সাত জনকে নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত সরকারি হিসাবে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ২৭ হাজার ৬৫৪ জন। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৬৪৫ জন। তাদের নিয়ে এখন পর্যন্ত সরকারি হিসাবে মোট শনাক্ত হলেন ১৫ লাখ ৬১ হাজার ৪৬৩ জন।

করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৮১৪ জন। তাদের নিয়ে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠলেন মোট ১৫ লাখ ২২ হাজার ৫৯১ জন। এই সময়ে রোগী শনাক্তের হার দুই দশমিক ৭৭ শতাংশ আর এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৭৫ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৫১ শতাংশ আর মৃত্যুহার এক দশমিক ৭৭ শতাংশ।

একদিনে করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ২৩ হাজার ২০৪টি আর পরীক্ষা হয়েছে ২৩ হাজার ৩০২টি। দেশে এখন পর্যন্ত করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৯৯ লাখ ১৪ হাজার ৯১৬টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ৭২ লাখ ৮৯ হাজার ১১২টি আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ২৬ লাখ ২৫ হাজার ৮০৪টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত সাত জনের মধ্যে পুরুষ তিন জন আর নারী চার জন। দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত মোট পুরুষ মারা গেলেন ১৭ হাজার ৭৩৩ জন আর নারী নয় হাজার ৯২১ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, এদের মধ্যে সাত জনের মধ্যে ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে রয়েছেন তিন জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে দুই জন আর ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে আছেন দুই জন। তাদের মধ্যে ঢাকা আর চট্টগ্রাম বিভাগের আছেন তিন জন করে আর রংপুর বিভাগের আছেন একজন। তাদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ছয় জন আর বেসরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন একজন।

প্রসঙ্গত, মার্চ মাসের পর থেকে করোনায় দৈনিক মৃত্যু ক্রমেই বাড়তে থাকে। করোনাভাইরাসের ডেল্টা ধরনের দাপটের মধ্যে জুলাই মাসে দৈনিক মৃত্যু দুইশর ঘর ছাড়িয়ে যায়। গত আগস্ট মাসের দুই দিন ভাইরাসটিতে সর্বোচ্চ ২৬৪ জনের মৃত্যু হয়।তবে গত কিছুদিন ধরে সংক্রমণের হার কমার সঙ্গে সঙ্গে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাও কমছে।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...