সম্প্রীতি নষ্টে ব্যবহৃত হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম

0

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘দেশে যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিরাজ করছে, সেটি নষ্ট করার জন্য নানা ধরনের ষড়যন্ত্র মাঝে মাঝে করা হয়। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার জন্য অন্যতম মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমকে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উসকানি দিয়ে দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্নসময় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার অপচেষ্টা হয়েছে। সরকার কঠোরভাবে সেটা দমন করেছে। ভবিষ্যতেও যে কোনো উসকানি দমন করতে সরকার বদ্ধপরিকর।’

শনিবার (৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় রাঙ্গুনিয়ায় শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট্রের চেক ও বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘পাকিস্তানের সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রব্যবস্থা থেকে বেরিয়ে এসে মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান একসঙ্গে যুদ্ধ করে অসম্প্রদায়িক রাষ্ট্র রচনা করেছে। সবার মিলিত রক্তস্রোতের বিনিময়ে এদেশ স্বাধীন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য উদাহারণ তৈরি করতে সক্ষম হয়েছেন।’

হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি উত্তম কুমার শর্মার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি অধ্যাপক বেনু কুমার দে, রাঙ্গুনিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান স্বজন কুমার তালুকদার, কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী হিল্লোল বিশ্বাস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইফতেখার ইউনূসসহ অন্যরা।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...