তৈরি করুন মজাদার রকমারি ভর্তা

0

ভর্তার কথা শুনলেই জিভে জল আসে না, তা খুব কম মানুষই খুজে পাওয়া যাবে। বিশেষ করে বাঙালিদের কাছে ভর্তা অনেক জনপ্রিয় একটা খাবার।
আমরা সকলেই কম বেশি ভর্তা বানাতেও জানি। তবে আজকে জেনে নেওয়া যাক সহজ কিছু ভর্তা তৈরি নিয়ম।

১. থানকুনি পাতার ভর্তা
যা লাগবে: থানকুনি পাতা ১ কাপ, কাঁচামরিচ ২টি, রসুনের কোয়া ২টি, লবণ স্বাদমতো, তিল ২ টেবিল চামচ, কালিজিরা ১ চা চামচ।
যেভাবে বানাবেন: সব উপকরণ একসঙ্গে বেটে (সব পাতা ধুয়ে পানি মুছে নিতে হবে) ভর্তা তৈরি করতে হবে। এরপর গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

২. পেঁয়াজ পাতা ভর্তা
যা লাগবে: ১ ইঞ্চি লম্বা করে কাটা পেঁয়াজ পাতা ২ কাপ, সরিষার তেল ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি ১ টেবিল চামচ, শুকনো মরিচ ২টি, কাশুন্দি ১ চা চামচ, লবণ পরিমাণমতো।
যেভাবে বানাবেন: ফ্রাই প্যান অথবা কড়াইতে তেল গরম করে পেঁয়াজ পাতা ছেড়ে দিয়ে অল্প আঁচে ২ থেকে ৩ মিনিট নাড়ুন। পেঁয়াজপাতা নরম হয়ে এলে নামিয়ে নিন। এবার শুকনো মরিচ, পেঁয়াজ কুচি ও লবণ ভালোভাবে ডলে পেঁয়াজ পাতা ও কাশুন্দি দিয়ে হালকাভাবে মেখে ভর্তা তৈরি করুন। গরম ভাতের সঙ্গে এই ভর্তা খেতে মজা।

৩. লাউয়ের সিলকা ভর্তা
যা লাগবেন:
লাউয়ের সিলকা-৩ কাপ, শুকনা মরিচ পোড়ানো-৪/৫টি, লবণ-পরিমাণ মতো, ধনে পাতা-সিকি কাপ, পিঁয়াজ কুচি-সিকি কাপ, সরিষার তেল-২ টেবিল চামচ।
যেভাবে বানাবেন: লাউয়েরর সিলকা ধুয়ে পানি দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। এবার তেলের মধ্যে লাউয়ের সিলকা ভেজে নিন। শুকনা মরিচ ভেজে নিন, পিঁয়াজ ভেজে নিন। ধনে পাতা কুচি করে নিন। এবার লাউয়ের সিলকা, শুকনো মরিচ, পিঁয়াজ কুচি, ধনে পাতা কুচি সব একসঙ্গে পাটায় মিহি করে বেটে নিন। হয়ে গেল লাউ এর সিলকা ভর্তা।

৪. চিনাবাদাম ভর্তা
যা লাগবে:
চিনাবাদাম ভাজা (খোসা ছাড়া) ১ কাপ, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, কাঁচা মরিচ ৪ থেকে ৫টি, ধনে পাতা কুচি ১ আঁটি, সরিষার তেল ১ টেবিল-চামচ, লবণ পরিমাণমতো।
যেভাবে বানাবেন: কাঁচা মরিচ কাঠখোলায় টেলে নিতে হবে। বাদামের লাল খোসা ঘষে তুলে ফেলে, পাটায় বেটে নিতে হবে। কাঁচা মরিচ বেটে নিতে হবে। এবার তেলের সঙ্গে পেঁয়াজ, লবণ, ধনেপাতা কুচি চটকে বাদাম ও কাঁচা মরিচ বাটা দিয়ে মাখাতে হবে। গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করা যায়।

৫. মিষ্টি কুমড়ার ভর্তা
যা লাগবে:
মিষ্টি কুমড়া ২ কাপ, লবণ পরিমাণমতো, পানি ১ কাপ, ধনেপাতা কুঁচি ২ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ কুঁচি ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুঁচি ৪/১ কাপ।
যেভাবে বানাবেন: মিষ্টি কুমড়া খোসা ছাড়িয়ে কেটে ধুয়ে পানি দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। এবার সেদ্ধ করা মিষ্টি কুমড়ার সঙ্গে সব উপকরণ খুব ভালো করে মেখে নিন। হয়ে গেল মজাদার মিষ্টি কুমড়ার ভর্তা।

জয়নিউজ/বিশু
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...